Fri. Mar 5th, 2021

গাজীপুরে ৭দিন পর ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার, আটক ৩

মুহাম্মদ আতিকুর রহমান,গাজীপুর জেলা প্রতিনিধিঃ গাজীপুর গোয়েন্দা পুলিশ গজারী বন থেকে ৭দিন পর মনিরুজ্জামান নামে নিখোঁজ এক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

১৪ অক্টোবর শুক্রবার দুপুরে গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ তার নিজ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

আটককৃতরা হলো- গাজীপুর সদর উপজেলার পিঙ্গাইল পূর্বপাড়া এলাকার ফটিক বর্মনের ছেলে লিটন চন্দ্র বর্মন (১৯), গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার চকবড়হর নুতনবাজার এলাকার অতুল বাবুর ছেলে প্রদীপ বাবু (১৯) এবং গাজীপুর সদর উপজেলার ভবানীপুর এলাকার নয়ন বর্মনের ছেলে প্রদীপ বর্মন।

গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ শুক্রবার দুপুরে তার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, গত ৬ অক্টোবর বৃহস্পতিবার মনিরুজ্জামান (৪৩) নিখোঁজ হন। গত ১০ অক্টোবর সোমবার তার ভাই কাওসার আহম্মেদ পুলিশ সুপারের কাছে নিখোঁজের লিখিত অভিযোগ করেন। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে সন্দেহজনকভাবে জেলা ডিবি পুলিশ মনিরুজ্জামানের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে ওই এলাকায় অভিযান চালানো হয়। প্রথমে লিটন বর্মনকে আটকের পর স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ১৩ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পিঙ্গাইলের রাজেন্দ্র রিসোর্ট রোডের পার্শ্বের গজারী বন থেকে মনিরের লাশ উদ্ধার এবং পরিবারের লোকজনদের মাধ্যমে শনাক্ত করেন। পরে আরো দুইজনকে এ ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়। নিহত মনিরুজ্জামানের মোবাইল ফোন ও বাইসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার আরো জানান, প্রাথমিক তদন্তে মাদক ও একটি রিসোর্টে কাঁচা বাজার সরবরাহ করাকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকান্ডটি ঘটেছে বলে জানা গেছে। এছাড়াও তিনি জঙ্গি দমনে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেন।

এ ব্যাপারে জয়দেবপুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের আদালতের মাধ্যমে রিমান্ডে এনে সহযোগী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নিহত মনিরুজ্জামান গত কয়েক বছর আগে সে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের তিনসড়ক এলাকায় সপরিবারের বসবাস করতো।