Main Menu

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে প্রস্তুতি শুরু ইসির

ডেইলি বিডি নিউজঃ দেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের প্রস্তুতিমূলক কার্যক্রম শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এরই অংশ হিসেবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা শিগগিরই জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। এরপরই এ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে। সোমবার বিকালে নির্বাচন কমিশনারদের এক জরুরি বৈঠকে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের প্রস্তুতিমূলক কার্যক্রম শুরু করতে কমিশন সচিবালয়কে নির্দেশনা দেওয়া হয়। এরপরই কমিশনের কর্মকর্তারা মনোনয়নপত্র তৈরিসহ অন্যান্য প্রস্তুতিমূলক কার্যক্রম শুরু করেন। ইসি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

রাষ্ট্রপতির নির্বাচন কখন হবে, তা নিয়ে কমিশনের মধ্যে বিভ্রান্তি থাকলেও এর আইনি ব্যাখ্যাসহ সংবিধান বিশেষজ্ঞদের অভিমত দিয়ে পত্র পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর কমিশনের টনক নড়ে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার কমিশন জরুরি বৈঠক করে সচিবালয়কে নির্বাচনের প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

রাষ্ট্রপতি নির্বাচন প্রসঙ্গে সোমবার কমিশন সভার শেষে নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম সাংবাদিকদের বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। কমিশন এ বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ নেবে।’তিনি আরও বলেন, ‘২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল দায়িত্ব গ্রহণ করা বর্তমান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের পাঁচ বছরের মেয়াদ এ বছরের ২৩ এপ্রিল শেষ হবে।’

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের সময়সীমা সম্পর্কে সংবিধানের ১২৩ অনুচ্ছেদে উল্লেখ রয়েছে। সংবিধানের ১২৩ (১) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘রাষ্ট্রপতি-পদের মেয়াদ অবসানের কারণে উক্ত পদ শূন্য হইলে মেয়াদ-সমাপ্তির তারিখের পূর্ববর্তী নব্বই হইতে ষাট দিনের মধ্যে শূন্য পদ পূরণের জন্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত হইবে। এ হিসেবে বুধবার (২৪ জানুয়ারি) থেকে শুরু হবে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ক্ষণগণনা।’

কমিশনের বৈঠকে অংশ নেওয়া একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের সামগ্রিক প্রস্তুতি নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। বৈঠকে বলা হয়েছে, স্পিকারের সঙ্গে সিইসি সাক্ষাতের সময় নেবেন ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব। পাশাপাশি ভোটারদের তালিকা তৈরির জন্য সংসদ সচিবালয় থেকে এমপিদের নামের তালিকা সংগ্রহ করা হবে। এছাড়া কে কোন দলের এমপি, সেই তালিকাও করার জন্য বলা হয়েছে। এছাড়া নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন ফরম তৈরি করতেও নির্দেশনা দিয়েছে কমিশন।’

ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘এ নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা (নির্বাচন কর্তা) হবেন সিইসি। ভোটগ্রহণ হবে সংসদে। সংসদ সদস্যরা প্রকাশ্য ভোটে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন করবেন। রাষ্ট্রপতি পদে নির্বাচনে ভোট দেওয়ার জন্য কোনও সিল থাকবে না। সংসদ সদস্যরা নিজের পূর্ণনাম স্বাক্ষর করে ভোট দেবেন।’তিনি আরও বলেন, ‘সংসদের কার্যউপদেষ্টা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী চলতি ১৯তম অধিবেশন ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সংসদ অধিবেশন চলার সিদ্ধান্ত রয়েছে। এ হিসেবে চলতি অধিবেশনে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।’

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের বিষয়ে জানতে চাইলে ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি নির্বাচন সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হবে। সংসদ সদস্যরা হবেন নির্বাচনের ভোটার। তাই শিগগিরই স্পিকারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন সিইসি। ওই সাক্ষাতে নির্বাচনের বিষয়ে আলোচনা করবেন। এরপরই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে।’ তবে এখনও সাক্ষাতের দিনক্ষণ ঠিক হয়নি বলে জানান তিনি।






Related News

Comments are Closed