Fri. Sep 18th, 2020

তিন সাংসদের দুঃখ প্রকাশ

ডেইলি বিডি নিউজঃ আসন্ন পৌরসভা পরিষদের নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় নিজেদের উপস্থিতিকে ‘অনিচ্ছাকৃত ভুল’ উল্লেখ করে নির্বাচন কমিশনের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন তিনজন সংসদ সদস্য। ভবিষ্যতে আচরণবিধি ভঙ্গ করবেন না বলেও জানিয়েছেন তারা।

পৌর নির্বাচনে আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে নির্বাচন কমিশনের ‘শো-কজ’ নোটিশের জবাবে নিজের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে ক্ষমতাসীন দলের ঢাকা-২০ আসনের সংসদ সদস্য এম এ মালেক, নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল এবং বরগুনা-২ আসনের হাচানুর রহমান রিমন দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

গত রোববার নির্বাচন কমিশন আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে এই তিন সংসদ সদস্যকে তিন দিনের মধ্যে জবাব দিতে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়।

মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় উপস্থিতি, হেলিকপ্টার ব্যবহার ও আগাম প্রচারমূলক কাজে জড়িত থেকে সরকারি সুবিধাভোগী এই ব্যক্তিদের আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগের বিষয়ে বুধবারের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়। বুধবার সকালে ঢাকা-২০ আসনের সংসদ সদস্যের জবাব আসে ইসিতে।

এ বিষয়ে সংসদ সদস্য এম এ মালেক বলেন, ‘আমি নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সচিব বরাবর জবাব পাঠিয়েছি। অনিচ্ছাকৃত এই ঘটনার জন্যে দুঃখও প্রকাশ করেছি। আমি ইসিকে জানিয়েছি- আগামীতে এই ধরনের কোনো ভুল আমার দ্বারা হবে না।’

এ ছাড়া নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল মঙ্গলবার ইসি সচিবের কাছে জবাব পাঠিয়েছেন। তাতে বলা হয়েছে- মেয়র প্রার্থী উমা চৌধুরীর সঙ্গে গিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া হয়েছে।

তিনিও অনিচ্ছাকৃত ভুলের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে এবং আগামীতে আচরণবিধি পালনের বিষয়ে সচেতন থাকবেন বলে জানান ইসিকে।

বরগুনা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাচানুর রহমান রিমনের জবাব ইসিতে এসে পৌঁছায় বিকেলে। তিনিও দুঃখ প্রকাশ করে ভবিষ্যতে আচরণবিধি মেনে চলবেন বলে জানিয়েছেন।