|
এই সংবাদটি পড়েছেন 221 জন

মাউন্ট এডোরার ডা. রাশিদুন নবীর বিরুদ্ধে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ, রোগীর অবস্থা শঙ্কটাপন্ন

স্টাফ রিপোর্টার :: সিলেটের মিরবক্সটুলা মাউন্ট এডোরা হাসপাতালের ডা. রাশিদুন নবী খানের বিরুদ্ধে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ এনে সিলেটে সিভিল সার্জন বরাবরে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন এক ভুক্তভোগী। বুধবার (২৫ এপ্রিল) তিনি এ অভিযোগ দায়ের করেন এয়ারপোর্ট থানার শাহী ঈদগাহ অনামিকা বি-৭ এর বাসিন্দা মৃত নিমার আলীর পুত্র মো. গিয়াস উদ্দিন আহমদ। অভিযোগের অনুলিপি এসএমপির কোতোয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ বরাবরেও প্রেরণ করেন।

অভিযোগে তিনি উলে­খ করেন- গত ১১ মার্চ নগরীর মিরবক্সটুলা মাউন্ট এডোরা হাসপাতালে বেকপেইন সমস্যার কারণে স্ত্রী মিসেস জেসমিন বেগমকে হাসপাতালে নিয়ে যান মো. গিয়াস উদ্দিন আহমদ। হাসপাতালে ডা. রাশিদুন নবী খানের পরামর্শে বেকপেইন অপারেশনের জন্য ভর্তি করান। দুই দিনের মধ্যে জেসমিনের অপারেশন করা হয়। এরপর ১৭ মার্চ ডা. রাশিদুন নবী খানের পরামর্শেই হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দিয়ে জেসমিনকে বাসায় পাঠানো হয়। কিন্তু অপারেশনের পর জেসমিনের অবস্থার আরো অবণতি ঘটে। যার ফলে ২৬ মার্চ আবার মাউন্ট এডোরা হাসপাতালে নিয়ে যান গিয়াস উদ্দিন আহমদ। হাসপাতালে ডা. রাশিদুন নবী খানকে দেখালে ডাক্তার তাকে কিছু পেইন কিলার ও ঘুমের ঔষুধ দিয়ে দেন। পেইন কিলার ও ঘুমের ঔষুধ সেবনের পর জেসমিনের কমর থেকে পিছনের এক অংশ অবস হওয়ার উপক্রম হয়। তাৎক্ষণিক আবারও রাশিদুন নবী খানকে দেখান। ডাক্তার এক্সে করার নির্দেশ দেন। এক্সে রিপোর্টে জানা যায়- আগে জেসমিনের সম্পূর্ণ অস্ত্রোপচার করা হয়নি। তার মেরুদন্ডে যে দুটি ইস্পাত সংযোজন করা হয়েছিল তা খুলে গেছে। ডাক্তারের ভূল অপারেশনের কারণে জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে আছেন জেসমিন বেগম।
এ অবস্থায় গিয়াস উদ্দিন আহমদ ডাক্তারের কাছে অসহায় হয়ে আইনের আশ্রয় নিয়েছেন। দিন দিন রোগী জেসমিনের অবস্থা আরও শঙ্কটাপন্ন হচ্ছে বলেও জানান তিনি।