|
এই সংবাদটি পড়েছেন 54 জন

নবীগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ২০, পুলিশ মোতায়েন

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার এনাতাবাদ গ্রামে পূর্ববিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের ঘর বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর, লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ৫টি বাড়ি ভাঙচুর করা হয়।

হামলায় স্কুলছাত্রীসহ প্রায় ২০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে দুই জনকে আশঙ্কাজন অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অপর আহতদের নবীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ও প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
আজ রবিবার ভোরে কুর্শি ইউনিয়নের এনাতাবাদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এলাকায় টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছে। সংঘর্ষ এড়াতে এনাতাবাদ গ্রামজুড়ে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলার এনাতাবাদ গ্রামের জাহির আলী, রেজান উল্লাহ গংদের সাথে একই গ্রামের আব্দুর রহমান, তছু মিয়া ও দুরুদ মিয়া গংদের মধ্যে আতিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিরোধ চলে আসছে।

এ অবস্থায় গত বৃহস্পতিবার রাতে রেজান উল্লাহ ও আব্দুর রহমানের মধ্যে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে রবিবার ভোরে আব্দুর রহমান, তছু মিয়া ও দুরুদ মিয়ার পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে জাহির আলী ও রেজান আলীর বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় প্রায় ঘণ্টাব্যাপী চলে এই তাণ্ডবলীলা। সংঘর্ষ চলাকালে নগদ টাকা ও বিভিন্ন মালামালসহ প্রায় ৩ লক্ষ টাকার লুটপাট করা হয় বলে জানিয়েছেন ওই বাড়ির গৃহকর্তা রেজান উল্লাহ।
ঘটনার পেয়ে নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। এদিকে পরিস্থিতি শান্ত না হওয়া পর্যন্ত পুলিশ মোতায়েন থাকবে বলে জানিয়েছেন নবীগঞ্জ থানার ওসি ইকবাল হোসেন।

এ নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন জানান, এ ঘটনার খবর পেয়ে সাথে সাথে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছে। অভিযোগ দেওয়া হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।