|
এই সংবাদটি পড়েছেন 70 জন

আহতদের দেখতে গিয়ে তোপের মুখে শোভন-রাব্বানী

ডেইলি বিডি নিউজঃ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণার পর পদবঞ্চিতদের ওপর হামলায় আহত ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের দেখতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে গিয়ে তোপের মুখে পড়েছেন কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। তীব্র প্রতিবাদের মুখে আহতদের না দেখেই হাসপাতাল এলাকা ত্যাগ করেন তারা।

জানা গেছে, মধুর ক্যান্টিনে হামলায় আহত নেতাকর্মীদের দেখতে সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢামেকে যান শোভন ও রাব্বানী। এ সময় তাদের পথ আটকে প্রতিবাদ করেন পদবঞ্চিতরা। প্রায় আধা ঘণ্টা বাকবিতণ্ডার পর পিছু হটেন শোভন-রাব্বানী।

এ সময় উভয়পক্ষের নেতাকর্মীরা পাল্টাপাল্টি স্লোগান দিতে থাকেন। শোভন ও রাব্বানী মেডিক্যাল গেটে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাদের পথরুদ্ধ করেন রোকেয়া হলের সভাপতি ও ডাকসুর ক্যাফেটেরিয়া বিষয়ক সম্পাদক বিএম লিপি আকতার।

সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‌‌রাজাকার পুত্র, বিবাহিত, অছাত্রদের কমিটিতে রেখেছেন, আমাদের মতো ত্যাগীদের কেন মূল্যায়ন করেননি। জবাবে রাব্বানী বলেন, ‌‌‌‌‌সামনে মূল্যায়ন করা হবে।

সাবেক কমিটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাইফুদ্দিন বাবু বলেন, ‌ত্যাগী নেতাদের মারধর করে, কেন সিম্প্যাথি নেওয়ার জন্য এসেছেন? কোনোভাবেই এই নাটক করতে দেওয়া হবে না।

একই সময় আল আমিন রহমান বলেন, ‌যাদের কমিটিতে রেখেছেন তারা কোন বিবেচনায় আমাদের চেয়ে যোগ্য? শোভন বলেন, ‌সবকিছু বিবেচনা করা হবে। আমরা আহতদের দেখতে আসছি।

এর আগে মধুর ক্যান্টিনে পদবঞ্চিতরা সংবাদ সম্মেলন করতে চাইলে তাদের ওপর হামলা চালায় শোভন-রাব্বানীর অনুসারীরা। এতে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে অনেকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি আছেন।