|
এই সংবাদটি পড়েছেন 52 জন

ঈদের আগেই আসছে সিলেট জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি

ডেইলি বিডি নিউজঃ  ঈদের আগেই আসছে সিলেট জেলা বিএনপি’র আহবায়ক কমিটি তাই সিলেট জেলা বিএনপিতে শুরু হয়ে গেছে সম্মেলনের তোড়জোড়। ইতোমধ্যে দলের ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, উপজেলা ও পৌর বিএনপির মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটিকে ঢেলে সাজানোর প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে। কেন্দ্রীয় সূত্রমতে প্রথম ধাপে ছোট পরিসরের ১১ থেকে ১৫ সদস্যের একটি আহবায়ক কমিটি ঘোষনা হবে। এনিয়ে কেন্দ্রীয় বিএনপিও কাজ শুরু করেছে।

সূত্র জানিয়েছে, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে খোঁজা হচ্ছে একজন গ্রহনযোগ্য আহবায়ক। যিনি দায়িত্ব পাওয়ার তিন মাসের মধ্যে জেলার অধীনস্থ সকল ইউনিট কমিটি কাউন্সিলের মাধ্যমে গঠন করে জেলা সম্মেলনের আয়োজন করবেন। তবে এই ক্ষেত্রে শর্ত রয়েছে। যিনি কমিটিতে আহবায়ক হবেন তিনি পরবর্তীতে জেলা সম্মেলনে কোন পদে প্রার্থী হতে পারবেন না।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আহবায়ক কমিটিতে একজন আহবায়কের মাধ্যমে সদস্য রাখার চিন্তা ভাবনা চলছে। এক্ষেত্রে কমিটি ১১ থেকে ১৫ সদস্যের মধ্যে হতে পারে।

এদিকে, সম্ভাব্য আহবায়ক হিসেবে দু’জন বিএনপি নেতার নাম আলোচনায় রয়েছে। তারা হলেন- সিলেট জেলা বিএনপির বর্তমান কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক জেলা সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি আব্দুল কাহির চৌধুরী এবং সিলেট জেলা বিএনপির বিগত কমিটির আহবায়ক সাবেক পিপি এডভোকেট এম. নুরুল হক । তবে বিগত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জৈন্তাপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থীর পক্ষে প্রচারনায় এডভোকেট এম. নুরুল হকের অংশ নেয়ায় দলের নেতা কর্মীদের বড় একটি অংশই তার ব্যাপারে নেতিবাচক মনোভাব প্রকাশ করছেন।

এ কারণে গত কমিটিতে সম্মেলন সফল করে আলোচনায় থাকা এডভোকেট এম. নুরুল হক কিছুটা বেকায়দায় রয়েছেন।

এছাড়া আহবায়ক হিসেবে আরও যাদের নাম আলোচনায় আসছে তারা হলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্ঠা এম. এ হক ও সিলেট জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল গাফফার। তবে শেষ মুর্হূতে কার উপর আহবায়কের গুরু দায়িত্ব পড়ছে তা নির্ভর করছে বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সিদ্ধান্তের উপর। সব কিছু ঠিক থাকলে চলতি সপ্তাহেই ঘোষনা হতে পারে সিলেট জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি।