|
এই সংবাদটি পড়েছেন 25 জন

রাষ্টনায়ক শেখ হাসিনার স্বপ্ন ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কাজ করাই হচ্ছে নেতা কর্মীর দায়িত্ব- এড. বেলাল হোসাইন

ডেইলি বিডি নিউজ :: যুবলীগের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট বেলাল হোসাইন বলেছেন, যুবলীগ হচ্ছে রাষ্টনায়ক শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড রাস্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে যুবলীগ কর্মীদের অব্যাহত প্রয়াস চালিয়ে যেতে হবে। যুবলীগে কোন্দল সৃষ্টিকারীদের স্থান হবেনা। পরীক্ষিত নেতাকর্মীরাই দলীয় কার্যক্রমে সক্রিয় থাকার মধ্য দিয়েই নিজেদের উপযুক্ত স্থান করে নিতে পারেন। তিনি বলেন, যুবলীগের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী যুবলীগকে আজ অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। এই ধারাবাহিকতা রক্ষা করে তাঁর নির্দেশে রাজনীতিতে একটি সুশৃঙ্খল যুব সংগঠন উপহার দেওয়ার মধ্য দিয়ে উন্নয়ন এবং আস্থার রাজনীতি তৈরি করে নিতে হবে।

তিনি রোববার জেলা পরিষদ মিলায়তনকেন্দ্রে জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

বক্তব্যে শেষে তিনি আগামী ২৭ জুলাই জেলা যুবলীগের সম্মেলনের তারিখ ঘোষনা করেন এড.বেলাল হোসাইন ।তবে জেলা যুবলীগের সভাপতি শামীম আহমদের ব্যাক্তিগত অসুবিধার কারনে তারিখ পরিবর্তন হতে পারে বলে জানান।

জেলা যুবলীগের সভাপতি শামীম আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক খন্দকার মহসীন কামরানের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক আতিক।

প্রধান অতিথি এ সময় আরো বলেন, যুবলীগকে সিলেটে আরো শক্তিশালী করে তুলতে হবে। এজন্য জেলা এবং মহানগরসহ প্রতিটি ইউনিটে এই সংগঠনকে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিনের ক্ষোভ প্রশমনের মধ্য দিয়ে ত্যাগী কর্মীরা সংগঠনের স্থান করে নেওয়ার সুযোগ পাবে। তিনি বলেন, মনে রাখতে হবে যুবলীগ স্বচ্ছ ধারার রাজনীতিতে বিশ্বাসী। এই ধারার বিপরীতে অবস্থানকারীরা যুবলীগে আসার প্রয়োজন নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিশেষ বক্তার বক্তব্যে ফজলুল হক আতিক বলেন,যুবলীগ একটি সুশৃঙ্খল যুব সংগঠন, যুবলীগের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরীর নেতৃত্বে যুবলীগ দক্ষিণ এশিয়ার সর্ববৃহৎ সংগঠন।এই সংগঠনের কোন বদনাম নেই।

তিনি উপস্তিত নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন সিলেট জেলা ও মহানগর যুবলীগকে ঢেলে সাজানোর জন্য ইতিমধ্যে যুবলীগের চেয়ারম্যান নির্দেশ দিয়েছেন। সেই নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা কাজ করতে আসছি। আশা করি আপনাদের সকলের সহযোগীতায় একটি সুন্দর সফল সম্মেলন উপহার দিতে পারবো।

বক্তব্য রাখেন ওসমানীনগর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. আনা মিয়া,বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক রফিক আহমদ,জকিগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আব্দুল আহাদ, গোলাপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ওয়েছুর রহমান,দক্ষিণ সুরমা উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক নুরুল ইসলাম ,বিশ্বনাথ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আলতাফুর রহমান, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মাশার আহমদ শাহ,কানাইঘাট উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক এনাম আহমদ, জৈন্তাপুর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আনোয়ার হোসেন, ঘোয়াইনঘাট উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ফারুক আহমদ,কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আলাউদ্দিন, জেলা যুবলীগের মদস্য বাবলু আহমদ,শেখ আজাদ,মকসুদ আহমদ,আব্দুল হেকীম শামীম,সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য এসএম শাইস্তা তালুকদার, এড.আব্দুল মতিন,এড.জাহিদ সারওয়ার সবুজ,এড.জুয়েল আহমদ,নজরুল ইসলাম,দবির আলী।

এছাড়াও উপস্তিত ছিলেন, জেলা যুবলীগ নেতা সেলিম উদ্দিন,এড আফসর আহমদ,শামীম আহমদ,জাহাঙ্গীর আলম,এড.আলমগীর, প্রমুখ।