|
এই সংবাদটি পড়েছেন 23 জন

সিলেটে মন্ত্রীদের জোয়ার, জনগনের প্রত্যাশা

ডেইলি বিডি নিউজঃ সিলেটে এবার মন্ত্রীদের জোয়ার বইছে। আওয়ামী লীগের টানা তৃতীয় মেয়াদের সরকারে সিলেট বিভাগের মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর সংখ্যা ছিল ৫। এরমধ্যে মন্ত্রী ছিলেন ৩ জন আর প্রতিমন্ত্রী ২ জন।

শনিবার ইমরান আহমদ পূর্ণমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেয়ার পর এবার মন্ত্রী হলেন ৪ জন আর প্রতিমন্ত্রী থাকলেন ১ জন। বাংলাদেশে এর আগে এত মন্ত্রী পায়নি সিলেট বিভাগ।

গত ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচন শেষে আওয়ামী লীগ টানা তৃতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করে। এই সরকারের মন্ত্রী পরিষদে ঠাঁই পান সিলেটের ৫ জন।

তাদের মধ্যে তিন মন্ত্রী ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান, পরিবেশ বন ও জলবায়ূ মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন।

অপর দু’জন পেয়েছিলেন প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব। এরমধ্যে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছিলেন সিলেট-৪ আসন থেকে নির্বাচিত সাংসদ ইমরান আহমদ। আর বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে পেয়েছিলেন অ্যাডভোকেট মাহবুব আলী।

তবে শনিবার থেকে হিসেব পাল্টে গেছে। জৈন্তাপুর-গোয়াইনঘাট থেকে বারবার নির্বাচিত সাংসদ ইমরান এখন আর প্রতিমন্ত্রী নয়। এদিন তিনি পূর্ণমন্ত্রীর হিসাবে শপথ নিয়েছেন। তবে তার মন্ত্রণালয় কিন্তু পাল্টায়নি। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানেই আছেন।

এ মন্ত্রণালয় অবশ্য সিলেটবাসীর জন্য খুব প্রয়োজনীয় একটি মন্ত্রণালয়। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা বাংলাদেশীদের মধ্যে সিলেট অঞ্চলের মানুষই বেশী।

সচেতন সিলেটবাসীর ধারনা, মন্ত্রণালয়টি সিলেটের কারো দায়িত্বে থাকলে প্রবাসীদের প্রয়োজন তিনিই ভালো উপলব্ধি করতে পারবেন।

অবশ্য ইমরান আহমদ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়েই বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ উদ্যোগ নিয়েছিলেন। তারমধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য, প্রবাসীদের ইনসিউরেন্স ব্যবস্থা চালু করা। উদ্যোগটি বাস্তবায়ন হলে প্রবাসে মারা যাওয়াদের পরিবারগুলো আরো বেশি উপকৃত হবেন।

সিলেট শহরের জিন্দাবাজার এলাকার ব্যবসায়ী আক্কাস আলী (৪২) এ প্রসঙ্গে বলেন, ইমরান পূর্ণমন্ত্রী হয়েছেন। আশা করি তিনি আরও দ্রুত সিলেটের প্রবাসী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের জন্য ভালো আরও কল্যাণমূলক কিছু উপহার দিতে সক্ষম হবেন।

একটি রাজনৈতিক দলের সাথে জড়িত আম্বরখানার ব্যবসায়ী হাসান শাহেদ (৩৩)। সিলেটের ৫ জন মন্ত্রী নিয়ে তার প্রত্যাশা আকাশ ছোঁয়া।

বললেন, কোনকালেই বাংলাদেশে সিলেটের এত মন্ত্রী ছিলেন না। এবার ৫ জন মন্ত্রী। তারা নিজনিজ নির্বাচনী এলাকার জন্য যেমন কাজ করবেন, তেমনি সম্মিলিতভাবে সিলেটবাসীর জন্যও উদাহরন হওয়ার মতো কিছু কাজ করে যাবেন।