Sun. Mar 29th, 2020

সাবেক কাউন্সিলর পুত্রকে কুপিয়ে জখমঃ অবস্থা আশংকাজনক

ডেইলি বিডি নিউজঃ সিলেট নগরীর কুয়ারপাড়ে সাবেক কাউন্সিলর শাহানা আক্তার শানুর ছেলে রায়হান ইসলামকে (২২) রোববার রাত ৮টার দিকে দা-চাপাতি দিয়ে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তার অবস্থা আশংকাজনক। রায়হান কোতোয়ালি থানাধীন লামাবাজারস্থ খুলিয়াপাড়া এলাকার ৫২/৪ নং বাসার তাজুল ইসলামের ছেলে।

জানা যায়, রোববার রাত ৮টার দিকে রায়হানকে পাপ্পু নামের এক ছেলে বাসা থেকে ডেকে নেয়। কুয়ারপাড় গরমপীর মাজারের পাশে গেলে কা্উন্সিলর শানুর ছেলে রায়হানের চোখে খাকি চুন ছিটিয়ে ১০/১২ জন সন্ত্রাসী দা-চাপাতি দিয়ে তাকে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় রায়হানকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। তার অবস্থা আশংকাজনক। বর্তমানে অপারেশন থিয়েটারে রয়েছে সে।

পুলিশ জানায়, পূর্ব বিরোধের জের ধরে নগরীর লামাবাজার এলাকায় ৮-১০ জনের একটি দল রায়হানের উপর হামলা চালায়। এসময় দুর্বৃত্তরা রায়হানের বাম হাতে ৭টি ছুরিকাঘাত ও বাম পায়ে দা’র আঘাত রয়েছে বলে পুলিশ জানায়। পরে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় রাযহানকে উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করেন। প্রাথমিক ভাবে পুলিশ ধারণা করছে পূর্ব বিরোধের জের ধরে তার উপর হামলা চালানো হয়েছে। এর আগে ২০১৪ সালে কাউন্সিলর শানুর ছেলে সোহান ইসলাম (১৮) কে ছুরিকাঘাত করে খুন করা হয়। একই ভাবে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ি রায়হানের উপর হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহেল আহাম্মদ জানান, পূর্ব বিরোধের জের ধরে সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মহিলা কাউন্সিলর শাহানা বেগম শানুর ছেলে রায়হানের উপর হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অভিযোগ পেলে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।