|
এই সংবাদটি পড়েছেন 47 জন

ডিজেবাবুর”দাম সাড়ে ৫ লাখ

মাসুদ রনিঃ ১৫ মন ওজনের একটি গরুর দেখা মিলেছে সিলেটের দক্ষিণ সুরমার বারখলা এলাকার একটি খামারে। যার নাম ডিজেবাবু।গরুটির মালিক মোঃতারেক।প্রতিদিন এই গরুটি দেখতে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ও নগরীর অনেক উৎসুক জনতা ভীড় জমাচ্ছেন তার বাড়িতে।কে কেউ আবার দরদাম ও করছেন।তিনি এই গরুটির দাম চেয়েছেন সাড়ে ৫ লাখ টাকা।

আসন্ন পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে এই খামারি হলিষ্টীন ফ্রিজিয়ান জাতের দেশী শংকর জাতী এই গরুটি প্রায় ৪ বছর ধরে লালনপালন করছেন। বর্তমানে গরুটির ওজন ১৫ মন।

এই পবিত্র ঈদে যদি উপযুক্ত দাম পান তাহলে এটি বিক্রি করে দিবেন। ডিজেবাবু নামের এই গরু কতটাকা হলে বিক্রি করবেন জানতে চাইলে খামারি রাজু মিয়া বলেন, আমি ন্যায্য দাম পেলেই বিক্রি করে দিবো।

তিনি বলেন, ‘আমি প্রায় ৪ বছর ধরে এই গরুটি লালন পালন করছি। সাধারণত একটি গরুর পিছনে প্রাকৃতিক ঘাস ও লেবারসহ প্রতি মাসে ১০/১৫ হাজার টাকা খরচ হয়। এই গরুটির মা’ ২০ লিটার দুধ দিতো।এটি তার ঘরের গরু। তাই শখ করে তার নাম দিয়েছি ডিজেবাবু।

তিনি আরো বলেন, গরুটিকে আমরা প্রাকৃতিক খাবার খাওয়াই। খৈল,ভূষি,চিটা,ভুট্টা ভাংগা,ছোলা-ভুট ও সবুজ খাস ছাড়া অন্য কিছুই খাওয়াইনি। মোটাতাজা করতে কোনো প্রকার ইনজেকশন কিংবা ক্ষতিকর কোনো পদ্ধতি ব্যবহার করিনি।আমি নিয়মিত ডাক্তারের মাধ্যমে এটির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাই।এটি খুবই স্বাস্থ্য সবল একটি গরু। আমার খামারে দেশী শংকর জাতীর একমাত্র ষাড় গরু এটিই।এটি আমার শখের পোষা।

খামারি মোঃতারেক দক্ষিণ সুরমার বারোখলা মৃত মো.আব্দুল মতিনের ছেলে।
তার বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, তিনি নিজে গবাদিপশুর খামারে পরিচর্যা করছেন।অতি যত্নসহকারে লালন করছেন তার প্রিয় এই গরুটিকে।তার সাথে যোগাযোগের নাম্বার ০১৭২৬০১৪৯৫৫।