Thu. Oct 29th, 2020

গোয়ালন্দঘাট থানার সেই ওসি লিখলেন, ‘স্যার ডাকবেন না’

ডেইলি বিডি নিউজঃ সম্প্রতি প্রথমবারের মতো দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর এক যৌনকর্মীর জানাজা নামাজ-দাফন ও কুলখানি করে দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছেন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশিকুর রহমান, পিপিএম। এছাড়াও, একের পর এক ব্যতিক্রমী কাজ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা। এরমধ্যে রয়েছে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর সাবেক যৌনকর্মীদের নামাজ শিক্ষা কার্যক্রম চালু ও নিজেকে স্যার না ডাকতে জনসাধারণের প্রতি অনুরোধ জানানো। রোববার (১৬ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টার দিকে গোয়ালন্দঘাট থানার ফেসবুক আইডিতে নিজের অফিস কক্ষের দরজার সামনে টাঙানো একটি ব্যানারের ছবি পোস্ট করেন ওসি আশিকুর রহমান। যাতে লেখা রয়েছে, ‘মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার, পুলিশ হবে জনতার। ইহা একজন গণ কর্মচারীর অফিস। যে কোন প্রয়োজনে এই অফিসে ঢুকতে অনুমতির প্রয়োজন নাই। সরাসরি রুমে ঢুকুন। ওসি’কে স্যার বলার দরকার নাই। অনুরোধে: ওসি, গোয়ালন্দঘাট থানা, রাজবাড়ী’। নিজেকে স্যার না ডাকতে অনুরোধের প্রসঙ্গে ওসি আশিকুর রহমান বলেন, ‘জনগণ হচ্ছেন প্রজাতন্ত্রের মালিক আর আমি হচ্ছি প্রজাতন্ত্রের একজন কর্মচারী। তাই মালিক কর্মচারীকে স্যার বলে ডাকবেন; এটা আমার কাছে বেমানান মনে হয়। জনগণ আমাকে অফিসার, ভাই, বাবা, চাচা, বেটা যে কোন নামে ডাকতে পারেন।