Mon. Jun 1st, 2020

সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য সিলেট বাসীকে ধন্যবাদ জানান পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন

ডেইলি বিডি নিউজঃ সিলেট জেলার সম্মানীত নাগরিকগনদের কে অসংখ্য ধন্যবাদ,করোনা ভাইরাসের বৈশ্বিক সংক্রমন হতে নিজের পরিবার,আত্নীয় স্বজন কে রক্ষা করতে সর্বোপরি দেশের বৃহৎ স্বার্থের কথা চিন্তা করে সরকার কর্তৃক হোম কোয়ারেন্টাইন নিয়ম পালন করে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে যার যার বাড়িতে অবস্থান করার জন্য।প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেট জেলায় যেন করোনা ভাইরাস সংক্রমন করতে না পারে সেজন্য ইতিমধ্যে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে পুরু সিলেট জেলায় বিভিন্ন জনসচেতনতা মূলক কার্যক্রম চলমান রয়েছে। জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে গৃহীত পদক্ষেপে সাঁড়া দিয়ে সদ্য ফেরত সম্মানীত প্রবাসীগন হোমকোয়ার্ন্টাইনে থেকে পুলিশ কে সহযোগীতা করার জন্য আপনাদেরকেও ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

পুলিশ জেলার বিভিন্ন হাট বাজার সহ সচরাচর জনসমাগম থাকা এলাকা গুলো পরিদর্শন করে দেখতে পেরেছে যে জনগন সরকারের নির্দেশনার প্রতি সম্মান রেখে স্বেচ্ছায় সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে অবস্থান করছে বিধায় সামগ্রিকভাবে সিলেট জেলার পরিস্থিতি এখনো অনেক ভাল রয়েছে।তবে এখনো যারা বিচ্ছিন্নভাবে বাড়ির বাইরে জরুরী প্রয়োজন ব্যতিত ঘুরাফেরা করছেন আপনাদের কাছে অনুরোধ নিজেদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে হলেও সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে যার যার বাড়িতে অবস্থান করবেন।প্রিয় সিলেট বাসীর অব্যাহত সহযোগীতায় আগামীতে আমরা পরিস্থিতি আরো ভাল রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করি।

জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে মাননীয় আইজিপি স্যারের নির্দেশনা প্রত্যেক ইউনিটের অফিসার ফোর্সদের অবহিত করা হয়েছে।চিকিৎসা,ঔষধ,নিত্যপন্য,খাদদ্রব্য, বিদ্যুত,ব্যাংকিং ও মোবাইল ফোনসহ আবশ্যক সকল জরুরী সেবার সাথে সম্পৃক্ত ব্যক্তি ও যানবাহনের অবাধ চলাচল নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।এছাড়া সকল নিত্যপন্যের দোকান,কাঁচামালের দোকান,ফার্মেসী সহ মোবাইল ফোন সেবায় যুক্ত দোকানে কোন ধরনের বাধা সৃষ্টি না করতে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।খাবার হোটেল,রেস্টুরেন্ট খোলা রাখা যাবে তবে তাতে কাউকে বসে খেতে না দিয়ে ক্রেতা সাধারনের নিকট যেন পার্সেল সরবরাহ করা হয় হোটেল মালিকদের সেটি নিশ্চিত করতে হবে।তবে জরুরী পন্য,ঔষধ কিনতে আসা নাগরিকদেরও সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে পন্য ক্রয় করতে অনুরোধ করা হল।বিচ্ছিন্নভাবে কেউ রাস্তাঘাটে বের হলে তাদের সাথে কোনভাবেই অপেশাদার আচরন না করে বিচক্ষনতার সহিত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করতে দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার ফোর্সদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।ইতিমধ্যে আমাদের প্রত্যেকটি ইউনিটের অফিসার ফোর্স করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে সর্বোচ্ছ পেশাদারিত্বের সহিত নিরলসভাবে দায়িত্ব পালন করে আসছে মর্মে আমরা পর্যবেক্ষন করছি। আগামীতেও যেন এ ধারা অব্যাহত থাকে সেজন্য আমি আমার সকল সহকর্মীদের অনুরোধ করছি।

সিলেট জেলার সম্মানীত নাগরিকদের সর্বোচ্ছ সহযোগীতা এবং আন্তরিকতায় বৈশ্বিক মহামারি হিসেবে রুপ নেওয়া করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধ নামক যুদ্ধে আমরা জয়ী হব ইনশাল্লাহ।আপনাদের সবার মঙ্গল কামনা করি।

মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম
পুলিশ সুপার,সিলেট।