Thu. Jun 4th, 2020

জকিগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সুবাস’র ২য় ধাপে ১০০ টি পরিবারে ঈদ সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরন

এম. এ ওয়াহিদ চৌধুরীঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত বেসরকারী ন্বেচ্ছাসেবী সমাজকল্যান সংস্থা “সুবাস” এর পক্ষ থেকে ২৩মে শনিবার সকাল ১০ ঘটিকায় সুবাস এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি কবি ও কলামিস্ট সৈয়দ আছলাম হোসেন এর বাড়িতে ২য় বারের মত ১০০টি নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের মধ্যে ঈদ উপহার ও ২০ টি পরিবারের মধ্যে নগদ অর্থ প্রদান করা হয়। সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার ৬ নং সুলতানপুর ইউনিয়নের সুলতানপুর, ইছাপুর, দরিয়াবাদ ও ইলাবাজ গ্রামের নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত তালিকা করে ১০০ টি পরিবারের মধ্যে ঈদের খাদ্য সামগ্রি পেকেট করে উপহার হিসেবে ঘরে ঘরে পৌছে দেয়া হয়। বিতরন কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন সুবাস এর সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ সামছুল হক, কার্যকরী সদস্য মো কবির আল মাহমুদ, সিলেট সদর আঞ্চলিক উপকমিটির অর্থ সম্পাদক সৈয়দ আলী হোসেন, জকিগঞ্জ আঞ্চলিক উপকমিটির কার্যকরী সদস্য মো আয়নুল হক প্রমূখ।

করোনা ভাইরাসে বর্তমানে সারা বিশ্বে যখন মহামারি আকার ধারন করার কারনে সকল মানুষ নিরাপত্তার জন্য নিজ ঘরে থাকার সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্তরা খাদ্য সংকটে ভুগতেছেন। এহেন পরিস্থিতিতে পবিত্র ঈদকে সমানে রেখে অনেকের ঘরে নেই খাবার, মুখে নেই হাসি। সার্বিক দিক বিবেচনায় বেসরকারী ন্বেচ্ছাসেবী সমাজকল্যান সংস্থা ” সুবাস ” এর তহবিল থেকে ও সদস্যদের স্বেচ্ছায় দেয়া অর্থ দিয়ে ময়দা, তৈল, সেমাই ও চিনি পেকেট করে ১০০টি পরিবারের মুখে ঈদের আনন্দ দিতে সাধ্যানুসারে চেষ্ঠা করা হয়।

সুবাস এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি কবি ও কলামিষ্ট সৈয়দ আছলাম হোসেন এর দিক নির্দেশনায় উপহার সামগ্রি ও নগদ অর্থ বিভিন্ন সংকটপূর্ণ পরিবারের মধ্যে পৌছে দেয়া হয়। সেবা- ই আমাদের লক্ষ্য, আমরা ধূমপান মুক্ত ” শ্লোগানকে সামনে নিয়ে সুবাস যেভাবে নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের পাশে দাড়িয়েছে চলমান সংকটময় পরিস্থিতিতে দেশ বিদেশের বিত্তবানরা এবং সকল সেবামূলক সংস্থা সাধ্যমত অসহায়দের পাশে এগিয়ে আসতে তিনি অনুরোধ জানান।