Sat. Aug 8th, 2020

আগস্ট-সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বন্যা হওয়ার সম্ভাবনাঃ প্রধানমন্ত্রী

ডেইলি বিডি নিউজঃ আগস্ট-সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বন্যা হওয়ার সম্ভাবনা আছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের প্রস্তুতি আছে এটা মোকাবিলা করার।

আজ বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কক্সবাজার খুরুশকুল বিশেষ আশ্রয়ণ প্রকল্পের উদ্বোধনের সূচনা বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, বন্যার প্রকোপটা বেশি দেখা যাচ্ছে। এটা হচ্ছে শ্রাবণ মাস, ভাদ্র মাসের দিকে আরও পানি আসবে। অর্থাৎ আগস্ট থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আমাদের আরও বন্যা হওয়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে। আমাদের সে প্রস্তুতি আছে এটা মোকাবেলা করার। বন্যায় যারা ক্ষতিগ্রস্ত বা নদীভাঙনে যারা গৃহহারা হচ্ছে তাদেরও ঘরবাড়ি তৈরি করার জন্য আমরা জমির ব্যবস্থা করে দেব। সেটাও আমাদের লক্ষ্য আছে। এবার বাজেটে আমরা আলাদাভাবে টাকা রেখে দিয়েছি, গৃহহীন মানুষের ঘর করে দেওয়ার।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সারা বাংলাদেশেই কোথায় গৃহহীন, ভূমিহীন মানুষ আছে তাদের আমরা পুনর্বাসনের ব্যবস্থা নিচ্ছি। আশ্রায়ণ প্রকল্পের মাধ্যমে যেমন ঘর করে দিচ্ছি, পাশাপাশি যাদের জমি আছে তাদের ঘর করে দেওয়ার জন্য গৃহায়ণ তহবিল করা আছে। সেখান থেকে যেকোনো প্রতিষ্ঠান টাকা নিয়ে ঘর করতে পারে। আমরা নিজেরা আশ্রায়ণ প্রকল্পের মাধ্যমে, যাদের ভিটা আছে ঘর নাই, তাদের ঘর করে দিচ্ছি। অর্থাৎ আমরা জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছি।

তিনি বলেন, জাতির পিতার স্বপ্ন ছিল বাংলাদেশ হবে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত। আমরা জাতির পিতার সেই স্বপ্ন পূরণে এগিয়ে যাচ্ছিলাম। আর সেই লক্ষ্য আমাদের অর্জন করতে হবে। এভাবে আমরা কিন্তু আমাদের সমস্ত কর্মপরিকল্পনা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। কাজেই জাতির পিতার এই জন্মশতবার্ষিকীতে আমাদের লক্ষ্য যে, বাংলাদেশে একটি মানুষও গৃহহারা থাকবে না। প্রত্যেকটা মানুষকে আমি যেভাবেই হোক, গরীবানা হালে হলেও একটা চালা করে হলেও আমরা করে দেব, এটাই আমাদের লক্ষ্য।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের কাজের গতি খুব ভালো ছিল কিন্তু এই করোনা ভাইরাস এসে আমাদের সব জায়গায় একটা বাধার সৃষ্টি করেছে। আমি সবাইকে অনুরোধ করবো যে আপনারা, স্বাস্থ্য সম্পর্কে যে নির্দেশনাগুলো আছে, অর্থাৎ মাস্কটা পড়ে থাকবেন।