Sun. Oct 25th, 2020

কানাইঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অর্থ আত্মসাতের ঘটনায় পৃথক অভিযোগ দায়ের

কানাইঘাট প্রতিনিধি :: কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নানা ধরনের অনিয়ম দুর্নীতি এবং ভূয়া ভাউচার সৃষ্টি করে সরকারি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠায় বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য উপজেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা আগামী সোমবার ডাকা হয়েছে।

জানা গেছে, ভূয়া বিল-ভাউচার তৈরি করে হাসপাতালের বিভিন্ন খাতের কয়েক লক্ষ টাকা আত্মসাত সহ আরো কিছু অভিযোগ তুলে ধরে গত ৯ সেপ্টেম্বর তারিখ কানাইঘাট বাজারে নাঈম এন্ড ফাহিম ও পানসী রেস্টুরেন্টের সত্ত্বাধিকারী আব্দুল মান্নান এবং পৌরসভার রায়গড় গ্রামের মৃত তৈয়বুর রহমানের পুত্র আনোয়ার হোসেন গতকাল বৃহস্পতিবার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী ও নির্বাহী কর্মকর্তা বারিউল করিম খানের বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এছাড়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যানদ্বয় ও ৯টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানবৃন্দের বরাবরে হাসপাতালের অনিয়ম দুর্নীতি তুলে ধরে বেশ কয়েকজন স্বাক্ষর সম্বলিত পৃথক ১১টি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়। এ নিয়ে হাসপাতালের অর্থ আত্মসাত ও অনিয়মনের চিত্র তুলে ধরে গণমাধ্যমে সংবাদও প্রকাশিত হয়।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য গতকাল বৃহস্পতিবার উপজেলা সমন্বয় কমিটির মাসিক সভায় আলোচনা করা হয়। উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী ও নির্বাহী কর্মকর্তা বারিউল করিম খানের উপস্থিতিতে সভায় জনপ্রতিনিধিরা হাসপাতালের অনিয়মের অভিযোগ তদন্ত করে দেখার দাবী জানান। যার পরিপ্রেক্ষিতে আগামী সোমবার উপজেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা আহ্বান করা হয়।

বিষয়টি স্বীকার করে উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, হাসপাতালের বিভিন্ন খাতের অর্থ আত্মসাত, অনিয়মের অভিযোগ পাওয়ার পরি প্রেক্ষিতে বিষয়টি তদন্ত পূর্বক খতিয়ে দেখার জন্য হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা সোমবার আহ্বান করা হয়েছে। এ সভায় প্রয়োজনে তদন্ত কমিটি গঠন করে অভিযোগে যেসব বিষয়বস্তু তুলে ধরা হয়েছে তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।