Wed. Oct 28th, 2020

ব্যতিক্রমি ভাবে রং-তুলির আঁচড়ে চিত্রশিল্পীরা ফুটিয়ে তুলেছেন তাদের ক্ষোভ

ডেইলি বিডি নিউজঃ সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও পুলিশের নির্যাতনে যুবক নিহতের ঘটনায় সিলেটসহ উত্তাল সারাদেশ। প্রতিদিন বিভিন্ন সংগঠন জানাচ্ছে প্রতিবাদ। কেউ সমাবেশ করে, কেউ বা গান-কবিতায় জানাচ্ছেন প্রতিবাদ। এবার ব্যতিক্রমি আয়োজনে প্রতিবাদ ফুটে উঠেছে ক্যানভাসে। ‘দুষ্কাল প্রতিরোধে আমরা’ নাগরিক মোর্চার উদ্যোগে রং-তুলির আঁচড়ে চিত্রশিল্পীরা ফুটিয়ে তুলেছেন তাদের ক্ষোভ আর বেদনা।

সিলেট নগরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে ‘রং তুলিতে দুষ্কাল’ শিরোনামে প্রতিবাদী চিত্রাঙ্কনের আয়োজন করা হয় গতকাল শুক্রবার বিকেলে। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গিয়ে দেখা যায়,কর্মসূচির উদ্বোধক চিত্রশিল্পী অরবিন্দ দাশগুপ্ত ছবি আঁকছেন। ছবিতে একটি মেয়েকে নির্যাতনের প্রতীকী চিত্র ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

ছবির সারমর্ম জানতে চাইলে বলেন, ছবিতে আমি কয়েকটি বিষয় আনতে চেয়েছি। ধর্ষণ, নারী ও শিশু নির্যাতন এবং পুলিশের নীতি বিরুদ্ধ আচরণ ও নির্যাতনের বিষয়গুলো ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছি।’ তিনি আরও বলেন,প্রতিবাদের অনেক মাধ্যম, অনেক ভাষা আছে। রং-তুলি এর বাইরে নয়। মানুষের ক্ষোভ-বেদনা সবই রং তুলি দিয়ে প্রকাশ করা যায়। সেটাই আমরা করছি।

বিশ^ভারতীর চারুকলা বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থী দ্বীপ দাসের ছবির সারমর্ম জানতে চাইলে তিনি বলেন,একটি টিয়া পাখির মুখ বন্ধ করে রাখা হয়েছে। টিয়া পাখি রূপক হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে। মুখ বন্ধ মানে মানুষকে কথা বলতে দেওয়া হচ্ছে না। ঢাবির চারুকলার শিক্ষার্থী সুমিত্রা সুমি বলেন, সমাজে ধর্ষণ, গুম, খুন, ঘুষ, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন কালো হাত বেড়ে গেছে। এসবে জড়িতরা ক্ষমতাধর বলে মানুষ চুপ করে ছিল। কিন্তু এখন সবাই প্রতিবাদী হয়ে উঠেছে। মানুষের এতদিনের জমানো ক্ষোভ ও বেদনাগুলো আমরা চিত্রের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলছি।

শিল্পীরা নিজেদের চিত্রকর্মের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলেন বর্তমান সময়ের বিভিন্ন আলোচিত ঘটনার চিত্র। ছাত্রাবাসে ঘংঘবদ্ধ ধর্ষণ,নারীকে বিবস্ত্র করে মারধর,পুলিশের নির্যাতনসহ সাম্প্রতিক বিভিন্ন আলোচিত ঘটনাগুলো চিত্রকর্মে ফুটে ওঠেছে। শৈল্পিক এই প্রতিবাদী কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে ছবি এঁকে প্রতিবাদ জানান শিত্রশিল্পী শামসুল বাসিত শেরো, সত্যজিৎ চক্রবর্তী,আলী দেলওয়ার, মো. আলাউদ্দিন আল আজাদ, করুন দাস কিরণ, আব্দুল মালেক, শাহিন আহমদ, সুমিত্রা সুমি, মেঘদাদ মেঘ ও আহমেদ ইয়াসিন।

রং তুলিতে দুষ্কাল আয়োজনের সমন্বয়ক ইসমাইল গণি হিমন বলেন, ‘সম্প্রতি একের পর এক ধর্ষণ, খুন, বিচার বহির্ভুত হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটছে। এজন্য এই সময়টাকে দুষ্কাল আখ্যায়িত করা হয়েছে। যেগুলোর প্রতিবাদ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। তবে আমরা চিত্রশিল্পীরা রং তুলি দিয়ে দুষ্কালের প্রতিবাদ জানিয়েছি, চেয়েছি এর থেকে মুক্তি।

দেবাশীষ দেবুর সঞ্চালনায় উদ্বোধনী পর্বে বক্তব্য দেন দুষ্কাল প্রতিরোধে আমরা এর সংগঠক আব্দুল করিম কিম,আশরাফুল কবির,ইন্দ্রানী সেন সম্পা,দেবব্রত চৌধুরী লিটন,রাজীব রাসেল,নিরঞ্জন সরকার অপু, হিতাংশু কর বাবু প্রমুখ।

দুষ্কাল প্রতিরোধে আমরা এর সংগঠকরা জানান, এমসি কলেজে ধর্ষণ ও পুলিশ হেফাজতে হত্যার বিচার দাবিতে আঁকা ছবিগুলো নিয়ে আগামীকাল রবিবার সকাল ১১টায় প্রতিবাদী মিছিলের মাধ্যমে সিলেট জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হবে।