Thu. Nov 26th, 2020

৫ মাস ধরে মন্ত্রীবিহীন ধর্ম মন্ত্রণালয়

ডেইলি বিডি নিউজঃ প্রায় ৫ মাস ধরে দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী ছাড়াই পরিচালিত হচ্ছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রম। সচিব মো. নূরুল ইসলামের নেতৃত্বে মন্ত্রণালয় চলছে। তবে নীতি-নির্ধারণী কোনো সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর দ্বারস্থ হতে হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

গত ১৩ জুন রাতে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মারা যান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ। পরে কোভিড-১৯ পরীক্ষায় তার ফলাফল পজেটিভ আসে।

প্রসঙ্গত, ধর্মীয় মূল্যবোধ ও নৈতিকতাবোধ সম্পন্ন সমাজ বিনিমার্ণ, হজ ব্যবস্থাপনার উন্নয়ন, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও সংস্থার প্রাতিষ্ঠানিক উন্নয়ন, ধর্মীয় উৎসব উদযাপন ও দুঃস্থ ব্যক্তিদের চিকিৎসা সেবা, অনুদান প্রদান এবং আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের কাজগুলো করে থাকে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

নিয়ম অনুযায়ী কোনো মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বা দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী না থাকলে সেই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব চলে যায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

মন্ত্রীবিহীন মন্ত্রণালয় কীভাবে চলছে জানতে চাইলে অতিরিক্ত সচিব মো. আলতাফ হোসেন চৌধুরী বলেন, ‘আমাদের মন্ত্রী নেই এমন নয়। প্রধানমন্ত্রী এখন আমাদের মন্ত্রীর দায়িত্বে রয়েছেন। যখন যে বিষয়টি মন্ত্রীর কাছে যাওয়ার কথা সেটি আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে দিচ্ছি। তিনি দেখে ফেরত দিচ্ছেন। যেটি মন্ত্রীকে জানানোর কথা সেটিও প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হচ্ছে। আর অন্যান্য কাজকর্ম সচিবের নেতৃত্বে চলছে। কোনো সমস্যা হচ্ছে না।’

নাম প্রকাশ না করার শর্তে সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলেন, ‘ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সবচেয়ে বড় কাজ হচ্ছে হজ ব্যবস্থাপনা। কিন্তু কোভিড-১৯ এর কারণে চলতি বছর হজ হয়নি। আগামী বছরও হবে কি না সন্দেহ আছে। তাই মন্ত্রণালয়ের কাজের চাপ স্বাভাবিকের চেয়ে এমনিতেই কম। তাই মন্ত্রী না থাকায় মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রমে খুব একটা বিঘ্ন ঘটছে না।’

২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয় পেয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ। ৪৬ সদস্যের ওই মন্ত্রিসভায় ২৪ মন্ত্রী, ১৯ প্রতিমন্ত্রী ও ৩ জন উপমন্ত্রী রয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে রয়েছে ৬টি মন্ত্রণালয়।

এরপর ছোট আকারে দুই দফা পরিবর্তন আনা হয় মন্ত্রিসভায়। বর্তমানে মন্ত্রিসভায় মন্ত্রী ২৫ জন, প্রতিমন্ত্রী ১৮ জন ও উপমন্ত্রী রয়েছেন ৩ জন।