Wed. Dec 2nd, 2020

সিলেট তেমুখী পয়েন্টকে সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত চত্বর বাস্তবায়ন করা হোক: সুব্রত তালুকদার

ডেইলি বিডি নিউজঃ সুরমা আর কালনী নদীর ঢেউয়ের তালে তালে মাঝির কণ্ঠে বাউল গান। জল-জ্যোৎস্নার শহর সুনামগঞ্জে হাছন রাজা, রাধারমন দত্ত, কামাল পাশা,আব্দুল করিম ও দুর্বিন শাহের লোক উৎসব, ছায়াবৃক্ষ হিজল-করচের হাওর টাঙ্গুয়া, বর্ষায় পূর্ণিমা রাতে জ্যোৎস্না ও পানির থৈথৈ জলরাশি, দিরাইয়ে উজান ধলে ঐতিহ্যবাহী মেলা, বর্ষায় ভাটি অঞ্চলের গ্রামে গ্রামে রাধারমণ দত্তের ধামাইল গানের আসর,আর হাওরের ঢেউয়ের সাথে যুদ্ধ করে বাঁচা সবকিছু আগের মতোই আছে। শুধু নেই ভাটির প্রাণপুরুষ,হাওরের রাজপুত্র, রাজনীতির বরপুত্র বাবু সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত।

সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের হাত দিয়ে সারা বাংলাদেশ তথা বৃহত্তর সিলেটে অনেক নেতাকর্মীর জন্ম হয়েছে। জানি না তারা আপনাকে স্মরণ করে কিনা?কিন্তু বাংলাদেশের হাজার হাজার,লক্ষ লক্ষ মানুষ আপনাকে স্মরণ করে। কারণ বাংলাদেশের মানুষ রাজনীতির মাঝে আপনাকে খুঁজে পায়। আর দিরাই-শাল্লার মানুষ আজও আপনার জন্য কাঁদে।

সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের মৃত্যুর পর ২০১৭ সালে সিলেট নগরীতে এক স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী জনাব আবুল মাল আবদুল মুহিত। সুনামগঞ্জ থেকে সিলেট নগরীর প্রবেশ মুখ তেমুখীকে ‘সুরঞ্জিত চত্বর’ নামকরণের ঘোষণা দিয়েছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। শোকসভার আয়োজক সংগঠন ‘দিরাই-শাল্লা সম্প্রীতি পরিষদ’ তেমুখীকে সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের নামে নতুন নামকরণের প্রস্তাব করলে তিনি এ ঘোষণা দেন।

শোকসভায় সাবেক অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন, একজন জাতীয় নেতা মারা গেলে আমরা সিলেটে স্মরণসভা করি। কিন্তু সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত মারা গেছেন প্রায় সাত মাস অতিবাহিত হয়েছে, আমরা তাঁর স্মরণে কোনো সভা করতে পারিনি। এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত লজ্জার। এ জন্য আমরা সবাই দায়ী। সিলেট- সুনামগঞ্জ সড়কের তেমুখী পয়েন্টের গোল চত্বর প্রয়াত সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের নামে হবে।’কিন্তু দুঃখজনক ঘোষণার চার বছর অতিক্রম হতে চলেছে, বাস্তবায়ন করা তো দূরের কথা আজ এটি নিয়ে কেউ কথাই বলেন না। আসল সমস্যা কোথায়?
নাকি কোথাও কোন ভূত আছে? খুঁজে বের করুন। কারন সিলেটের পবিত্র মাটিতে কোন ভূতের স্থান নেই।

সিলেটের মানুষ সুরঞ্জিত চত্বরটির বাস্তবায়ন চায়। যদি শেষ সমাধানের জন্য বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে যেতে হয়,যাবেন। কারণ শেখ হাসিনাই বাঙালির শেষ ঠিকানা।আসুন সিলেটবাসীর প্রাণের দাবি তেমুখী পয়েন্টকে অনতিবিলম্বে সুরঞ্জিত চত্বর হিসেবে বাস্তবায়ন করার দাবি জানাই।।

সুব্রত তালুকদার।
ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক।
নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগ।।