Sat. Mar 6th, 2021

সিলেটে অপরাধী শনাক্তে ইন্টারনেট প্রটোকল ক্যামেরা

ডেইলি বিডি নিউজঃ সিলেট মহানগরীতে অপরাধীদের লাগাম টেনে ধরতে বসানো হয়েছে ১১০টি ইন্টারনেট প্রটোকল আইপি ক্যামেরা। অপরাধের ধরণ ও অপরাধীদের দ্রুত শনাক্ত করার ক্ষেত্রে উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন এই আইপি ক্যামেরা বিশেষ গুরুত্ব বহন করবে। এসব ক্যামেরার মধ্যে অত্যাধুনিক ১০টি ফেস রিকোগনিশন (এফআর) ক্যামেরাও রয়েছে। এতে সহজেই শনাক্ত হবে অপরাধী।

সূত্র জানায়, সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির আওতায় বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল ডিজিটাল সিলেট সিটি প্রকল্পের মাধ্যমে ১১০টি আইপি ক্যামেরা স্থাপন করে। নগরীতে বসবাসরত মানুষের জানমালের নিরাপত্তা বিধানের বিষয়টিকে অগ্রাধিকার দিয়ে এসএমপি’র নির্দেশনায় এসব ক্যামেরা স্থাপন করা হয়। সিলেট কোতোয়াল থানার দ্বিতীয় তলার নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক এসব ক্যামেরা মনিটরিং করা হচ্ছে। এ জন্য কাজ করছেন কম্পিউটার কাউন্সিল থেকে বিশেষ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত ১২ সদস্য।

সংশ্লিষ্টরা জানান, এসব ক্যামেরা নগরীর গুরুত্বপূর্ণ প্রবেশ মুখ, সড়ক ও জনবহুল স্থানে স্থাপন করা হয়েছে। পুলিশ যে কোন অপরাধীর ছবি দিয়ে আইপি ক্যামেরার সার্ভারে অনুসন্ধান করতে পারবে। ওই অপরাধীরা যদি আইপি ক্যামেরার আওতাভূক্ত কোন এলাকায় চলাফেরা করেন সার্ভার তা শনাক্ত করতে পারবে বলেও জানান।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) পরিতোষ ঘোষ জানান, আইপি ক্যামেরা অপরাধ নিয়ন্ত্রণে বিশেষ ভূমিকা রাখার পাশাপাশি পুলিশকে সহযোগীতা করবে। গত বুধবার আইপি ক্যামেরা বেজড সার্ভিলেন্স সিস্টেম পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ডিজিটাল সিলেট সিটি প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ব্যবহার হচ্ছে ১০টি ফেস রিকোগনিশন (এফআর) বা ব্যক্তি শনাক্তকরণ এবং ১০টি অটো নম্বার প্লেট রিকোগনিশন (এএনপিআর) যানবাহনের নম্বর প্লেট চিহিত করণ ক্যামেরা।

এ ব্যাপারে ডিজিটাল সিলেট সিটি প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক মধুসূদন চন্দ জানান, তারা এক বছর আগে ক্যামেরা স্থাপনের কাজ শুরু করেন। গত বুধবার এসএমপি সদর দপ্তরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আইপি ক্যামেরা বেজড সার্ভিলেন্স সিস্টেম হস্তান্তর করেছেন। এর সুফল ইতোমধ্যে নগরবাসী পাচ্ছেন উল্লেখ করে তিনি জানান, আইপি ক্যামেরা ব্যবহারের কারণে চুরি, ছিনতাই, রাহাজানী অনেকটা হ্রাস পেয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ সড়কে অপরাধের বিচরণ কমে এসেছে। এতে করে প্রকল্পের প্রকৃত উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।