Thu. Jan 21st, 2021

কুলাউড়া পৌরবাসী উন্নয়নের জন্য পরিবর্তন চায়?

ইউসুফ আহমদ ইমন, কুলাউড়া:: কুলাউড়া পৌরসভা নির্বাচনের ভোটের দিন যত ঘনিয়ে আসছে, ভোটের হিসাব-নিকাশ ততই ওলট-পালট হচ্ছে। ভোটাররাও কথাবার্তায় সতর্ক হয়ে উঠছেন। ঘোর সমর্থক ছাড়া প্রকাশ্যে কিছু বলে সাধারণ ভোটারদের কেউ কারও বিরাগভাজন হতে রাজি না। আবার এখনো অনেকে কাকে ভোট দেবেন, তা ঠিক করতে পারেননি। তবে ভোটাররা বলছেন সৎ ও যোগ্য প্রার্থীকেও ভোট দেবেন অনেকে।

সোমবার (১১ জানুয়ারি) পৌরসভার নানা শ্রেণি ও পেশার ভোটারের সঙ্গে কথা বলে পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে তাঁদের এসব প্রতিক্রিয়া জানা গেছে। তবে তাঁরা নানা দৃষ্টিকোণ থেকে তাঁদের প্রত্যাশার কথা জানিয়েছেন। বিগত দিন থেকে আমরা উল্টো পথে গিয়ে বার বার উন্নয়ন বঞ্চিত হচ্ছি। অনেকে আবার প্রতিশ্রুতি দিয়ে নির্বাচিত হয়ে নিজেদের সম্পদের পাহার বানাচ্ছেন।তাই নতুন করে আর কোন ধুঁকায় পরতে চান না কুলাউড়া পৌরবাসী। এবার উন্নয়নের জন্য পরিবর্তন চায়। পৌরসভার নির্বাচনে রাজনৈতিক হিসেব নিকেশ না করে উন্নয়নের জন্য একজন সৎ যোগ্য প্রার্থী নির্বাচিত করবেন।

তবে মেয়র পদে এখন পর্যন্ত এগিয়ে রয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনিত প্রার্থী কুলাউড়া একজন পরিচ্ছিন্ন ক্লিন ম্যান হিসেবে সর্বমহলে পরিচিতি অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ। গত নির্বাচনে দল থেকে মনোনয়ন না পেয়ে দলের মনোনিত প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছেন। তাঁর সাথে আরো ৩জন প্রার্থী প্রতিদন্ধিতা করছেন। বিএনপির মনোনিত প্রার্থী হিসেবে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ। আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে দলের সিদ্ধান্ত না মেনে বর্তমান মেয়র শফি আলম ইউনুছ (মহালদার) নারিকেল গাছ নিয়ে ভোটের মাঠে রয়েছেন। ইতি মধ্যে কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগ তাঁকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়াও নতুন মুখ শাজান মিয়া জগ প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে প্রতিদন্ধিতা করছেন এ পদে।

পৌরবাসীরা বলছেন, আমরা চাই এলাকার উন্নয়ন হোক। বিশুদ্ধ পানি পাব। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন শহর থাকবে। পরিকল্পিত ড্রেনিজ ব্যবস্থা সহ শহর থাকবে যানজট মুক্ত। রাতের শহর আলোকিত থাকবে। আর তাই একজন যোগ্য শিক্ষিত পৌর পিতা হিসেবে ভালো মানুষ কে নির্বাচিত করবো। সর্বপরি একজন ভালো মানুষ নির্বাচিত হলে এলাকার সার্বিক উন্নয়ন হতে পারে। নীতি-নৈতিকতা প্রতিষ্ঠা লাভ করবে।