Sun. Apr 11th, 2021

জৈন্তা বার্তা সম্পাদক ফারুক আহমদ কবিতাকুঞ্জ পুরস্কার পাচ্ছেন

ডেইলি বিডি নিউজঃ কবিতাকুঞ্জ সাহিত্য পরিবার এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সিলেট বিভাগীয় কমিটি সিলেটের সাতজন গুণী ব্যক্তিকে সম্মানিত করবে। সাংবাদিকতা বিভাগে জৈন্তাবার্তা সম্পাদক ফারুক আহমদ কবিতাকুঞ্জ পুরস্কার পাচ্ছেন। আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বিকেলে সিলেট জেলা পরিষদে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে এ সম্মাননা প্রদান করা হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বীরমুক্তিযোদ্ধা ড. অরূপ রতন চৌধুরী উপস্থিত থাকবেন।

উল্লেখ্য,ফারুক আহমদ একাধারে শিক্ষক ও সাংবাদিক। সিলেটের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য মন্ডিত ঐতিহাসিক জৈন্তাপুর উপজেলার বন্দর হাটি এলাকায় জন্ম গ্রহণ করেন তিনি। পিতা মৌলভী তৈয়ব আলী ও মাতা জহুরা বেগম। শিক্ষা জীবনে এমবিএ করা ফারুক আহমদ কলেজে শিক্ষকতা দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করলেও সাংবাদিকতাকে পেশা হিসেবে বেঁছে নিয়েছেন। বড় ভাই সাংবাদিক রশিদ হেলালীর হাত ধরে সাংবাদিকতায় যাত্রা শুরু। দেশের স্বনামধন্য কয়েকটি গনমাধ্যমে কাজ করে তিনি নিজেকে এ পেশায় পরিচিত করে তুলেছেন স্বমহিমায়। তিনি জাতীয় দৈনিক স্বাধীন বাংলার নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে দীর্ঘদিন ঢাকায় থেকে দায়িত্ব পালন করেছেন। পরবর্তীতে ২০০৪ সালে ফিরে আসেন নিজ শহর সিলেটে। সিলেটে এসে দায়িত্ব নেন দৈনিক জৈন্তা বার্তা’র ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে। এ সময় তিনি জাতীয় সংবাদ সংস্থা বাসসের জেলা প্রতিনিধি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৬ সালে ভোরের কাগজ পত্রিকার সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধির দায়িত্ব নেন। একটানা ৭ বছর দায়িত্ব পালন করে ২০১৩ সালে আহসানিয়া মিশনের মালিকানাধীন আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকার সিলেট অফিস প্রধান হিসেবে যোগদান করেন। ২০১৬ সালে র‌্যাংগস গ্রæপের মালিকাধীন পত্রিকা সকালের খবরের সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি হিসেবে যোগদান করেন। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পত্রিকাটি বন্ধ ঘোষনার আগ পর্যন্ত সেখানে কর্মরত ছিলেন। পত্রিকাটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তিনি আবারও তার পুরনো কর্মস্থল ভোরের কাগজে সিলেট ব্যুরো চীফ হিসেবে যোগদান করেন। এদিকে দৈনিক জৈন্তা বার্তা’র সম্পাদক ও প্রকাশক রশিদ হেলালীর আকস্মিক মৃত্যুতে পত্রিকাটির প্রকাশনা সাময়িক ভাবে বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে তিনি পত্রিকাটির প্রকাশক ও সম্পাদক হিসেবে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের অনুমোদন পেয়ে নতুন আঙ্গিকে পত্রিকাটির প্রকাশনা শুরু করেন। দৈনিক জৈন্তা বার্তা প্রিন্ট সংস্করণের পাশাপাশি তিনি অনলাইন সংস্করণ চালু করেন। ফারুক আহমদের দুরদর্শী নেতৃত্বে জৈন্তা বার্তা পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ সিলেটের পাঠকমহলে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে। অনলাইন সংস্করণটি তথ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক সিলেট বিভাগে প্রথম নিবন্ধন লাভ করে। এছাড়া তিনি ইংরেজী জাতীয় দৈনিক দি নিউজ টুডে পত্রিকার সিলেট ব্যুরো চীফ হিসেবেও কর্মরত ছিলেন। বর্তমানে তিনি ডেইলে ইন্ডাস্ট্রি পত্রিকার সিলেট ব্যুারো চীফ হিসেবেও কর্মরত আছেন। সম্প্রতি তিনি সম্পাদক পরিষদ সিলেট এর সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি সমাজ বিনির্মানেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছেন। পেশাজীবী হিসেবে তিনি শিক্ষক সংগঠনেও নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তিনি বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (বাকবিশিস ) এর সিলেট মহানগর শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক এবং বাকবিশিস কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন । জৈন্তাপুরে পারিবারিকভাবে প্রতিষ্টিত বেশ ক’টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দাতা ও প্রতিষ্ঠাতা ফারুক আহমদ একাধিক স্কুল কলেজের ব্যবস্থাপনা কমিটির বিভিন্ন মেয়াদে সভাপতির দায়িত্বও পালন করেছেন।