Mon. Mar 8th, 2021

গোয়াইনঘাটের ওসি আহাদসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধার মামলা

ডেইলি বিডি নিউজঃ গেলো নভেম্বর মাসেই শ্রেষ্ঠ ওসির সম্মাননা পান গোয়াইনঘাট থানার ওসি মো.আব্দুল আহাদ। কিন্তু ২ মাস পার হতে না হতেই তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠল দুর্নীতির। ওসি আব্দুল আহাদ ও থানার এসআই আব্দুলমান্নানসহ মোট ৯ জনের নামে দুর্নীতির অভিযোগে একটি মামলাও করা হয়েছে। মামলাটি করেছেন গোয়াইনঘাট থানার জাফলং নয়াবস্তি এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা ইনছান আলী।

মামলায় ওসি ও এসআই অন্যান্য আসামিদের সরকারি জায়গা থেকে এবং বাদীর নিজের জায়গা থেকে পাথর উত্তোলনের সুযোগ করে দেওয়ার বিনিময় দিয়ে অবৈধ ভাবে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে উল্লেখ করেন ওই মুক্তিযোদ্ধা।

রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সিলেটের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতে ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি দমন আইনের ৫ (২) ধারা ও দণ্ডবিধির অন্যান্য ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলা নম্বর- ০১/২০২১। আদালত মলাটি গ্রহণ করে দুর্নীতি দমন কমিশনে তদন্তের জন্য পাঠিয়েছেন বলে সিলেট ভয়েস-কে জানিয়েছেন বাদী পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট মোহাম্মদ শাহ আলম।

মামলায় প্রধান আসামী ওসি আব্দুল আহাদ ও ২য় আসামি করা হয়েছে এসআই আব্দুল মান্নানকে। এছাড়াও মামলার অন্যান্য আসামিরা হলেন,গোয়াইনঘাট থানার মামারবাজার এলাকার ইমরান হোসেন ওরফে জামাই সুমন, বল্লাঘাট এলাকার বর্তমান বাসিন্দা আলাউদ্দিন, নয়াবস্তির পাখি মিয়ার পুত্র সমেদ, ফয়জুল ইসলাম, মো. ফিরোজ, রহমত আলী ও সানু মিয়া।

মামলার এজহারে মুক্তিযোদ্ধা ইনছান আলী উল্লেখ করেন, গোয়াইনঘাট থানার ওসি মো. আব্দুল আহাদ ও এসআই আব্দুল মান্নান তাঁর মৌরসী জায়গা অন্যান্য আসামিদের পাথর তুলতে দেওয়ার মাধ্যমে আর্থিক ফায়দা হাসিল করেন এবং তিনি নিষেধ করলে তাঁর উপর বলপ্রয়োগ করা হয়। এমনকি অন্যান্য সরকারি খাস জায়গা থেকে আসামিদের পাথর উত্তোলনের সুযোগ করে দিয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। এতে একদিকে যেমন সরকার রাজস্ব হারাচ্ছে তেমনই বিভিন্ন যন্ত্রের ব্যবহারের ফলে পরিবেশের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে।