Mon. Mar 8th, 2021

সিলেটে হামলার মুখে মেয়র, আগ্নেয়াস্ত্রসহ পরিবহন শ্রমিক গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার :: সিলেট নগরীর চৌহাট্টা এলাকায় সিসিকের শ্রমিক ও পরিবহন শ্রমিকদের সংঘর্ষ চলাকালে আগ্নেয়াস্ত্রসহ এক পরিবহনণ শ্রমিককে ধাওয়া করে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে একনলার একটি বন্দুক উদ্ধার করে পুলিশ। আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে গ্রেফতারকৃত পরিবহন শ্রমিক সিসিকের শ্রমিকদের গুলি করার চেষ্টা চালায়। বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে চৌহাট্টা থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত শ্রমিক ফয়সল আহমদ ফাহাদ (৩৮)। সে চৌহাট্টা পরিবহন স্ট্যান্ডের শ্রমিক।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বেলা আনুমানিক পৌনে ১ টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। এ সময় সিসিক কর্মী ও পুলিশের সাথে পরিবহন শ্রমিকদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। হামলার মুখে পড়েছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হোক চৌধুরী।

এরআগে বুধবার সকাল থেকে অবৈধভাবে দখলে থাকা গাড়ির স্ট্যান্ড না ছাড়ার জন্য পরিবহন শ্রমিকরা আন্দোলন শুরু করে সিসিকের উন্নয়ন কাজ বন্ধ করে দেয়। পরিস্থিতি শান্ত করতে সিসিকের কয়েকজন কাউন্সিলর ঘটনাস্থলে গেলে পরিবহন শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে কাউন্সিলর ও সিসিকের শ্রমিকদের উপর হামলার চেষ্টা করলে শুরু হয় উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ। এসময় পরিবহন শ্রমিকরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা চালায় ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। সংঘর্ষে সিসিকের শ্রমিকরাও পরিবহন শ্রমিকদের ধাওয়া করলে সংঘর্ষটি আম্বরখানা এলাকা পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ে। এসময় বেশ কয়েকটি মাইক্রোবাস ভাংচুর করা হয়।

মহানগর ট্রাফিক পুলিশের উপ পুলিশ কমিশনার ফয়সল মাহমুদ বলেন, সরকারি রাস্তা দখল করে যানবাহন রাখা হচ্ছে দীর্ঘদিন থেকে। কিন্তু সম্প্রতি সিসিকের উন্নয়ন কাজ শুরু হওয়ায় চৌহাট্টাস্থ এলাকার অবৈধ পরিবহন স্ট্যান্ড সরানোর জন্য বলা হলেও শ্রমিকরা যানবাহন না সরিয়ে বিভিন্ন দাবি জানিয়ে আন্দোলন শুরু করে। এক পর্যায়ে সিসিকের শ্রমিক ও পরিবহন শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।