Wed. Mar 3rd, 2021

ফুল হলো পুলিশ ও জনতার বন্ধুত্বের নিদর্শনঃ ওসি শ্যামল বণিক

ডেইলি বিডি নিউজঃ থানা মানে হলো
পুলিশ,অস্ত্র,হাজত,অভিযোগ, মামলা,নথিপত্র ইত্যাদি জটিল বিষয়ের সমষ্টিগত কার্যালয়ের নাম। বিপদগ্রস্ত মানুষের নিরাপদ আশ্রয়স্থল থানা। থানায় কখন মানুষ আসেন? কোন অবস্থার পরিপেক্ষিতে থানায় আসেন বিচার প্রার্থী জনগণ। যখন ন্যায় বিচারের প্রথাগত সকল দোয়ার বন্ধ বা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে তখনই কেবল বাধ্য হয়ে থানায় এসে প্রার্থী হন সাধারণ মানুষ।

অনেকেই মনে করেন,ইট পাথরের গড়া এই জায়গাটি ভয় আর জটিল সমীকরণের। কাজেই প্রয়োজন ছাড়া থানা প্রাঙ্গনে আসতে চান না সাধারণ মানুষ। ফলে পুলিশ এবং জনগণের মধ্যে ইতিবাচক সম্পর্কের দূরত্ব তৈরি হয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে।

জনগণ ও পুলিশের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নে সরকার নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। পুলিশের সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে কমিউনিটি বিট পুলিশিংয়ের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। যা পুলিশ ও জনতার মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক তৈরি করছে।

পুলিশ বিভাগের কিছু দক্ষ,মেধাবী,সংস্কৃতিমনা, সৃজনশীল কর্মকর্তাদের ভিন্নধর্মী কর্মকাণ্ড আইনের রক্ষক পুলিশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছেন।

ঠিক তেমনি একজন মেধাবী,সংস্কৃতিমনা মানুষ হলেন ওসি শ্যামল বণিক। ওসি শ্যামল বণিক তার কর্ম জীবনে যখনই যেখানে দায়িত্ব নিয়ে গেছেন সেখানের চারপাশটা কে গড়ে তুলেছেন এক সৃজনশীল পরিবেশ মণ্ডিত এলাকা। কর্ম দক্ষতা দিয়ে থানা কে গড়ে তুলেছেন জনবান্ধব হিসেবে।

ওসি শ্যামল বণিকের বর্তমান কর্মস্থল ওসমানীনগর মডেল থানা। ওসমানীনগর থানায় যোগদানের পর থেকেই নিজের সৃজনশীল চিন্তা ধারায় আস্তে আস্তে করে থানায় এনেছেন আমূল পরিবর্তন যা বর্তমানে থানার গেট থেকে এক দু পা ভিতরে ঢুকলেই যে কেউ তা অনুভব করতে পারবেন। যেমন পরিস্কার পরিচ্ছন্ন তেমনি মনোমুগ্ধকর ভাবে সাজানো গোছানো পরিবেশ যে কারো মনকে মুগ্ধ করে তুলবে।

ফুলকে পবিত্রতার প্রতীক হিসেবে বলা হয় যেখানে চারপাশে ফুল থাকে সেখানে অপবিত্রা বসবাস করতে পারে না মনটাকে বিশুদ্ধতায় ভরে তুলে।

ফুল বন্ধুত্বের অন্যতম নিদর্শন। ফুল পছন্দ করেন না এমন মানুষ পাওয়া দুষ্কর। সাজানো গোছানো বাগান দেখে মুগ্ধ হোননা এমন মানুষ পাওয়া দুস্কর।
আর এই ফুলের বাগান যদি হয় থানা প্রাঙ্গণে অর্থাৎ বন্দুকের নলের সামনে তখন তা হয়ে ওঠে অসাধারণ মন্ডিত মন জোড়ানো স্থান। ফুলের সৌন্দর্যে মোহিত হন থানায় আসা বাদী-বিবাদীসহ প্রয়োজনে আসা জনসাধারণ মানুষ ও।

ওসমানীনগর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল বণিকের প্রচেষ্টায় থানা প্রাঙ্গণে গড়ে তোলা হয়েছে লাল,গোলাপী,হলুদসহ বাহারি রঙের বিভিন্ন জাতের ফুলের বাগান। থানার সম্মুখে গড়ে তোলা হয়েছে দৃষ্টিনন্দন ফুলের বাগান আর এই বাগান থানার সৌন্দর্য বাড়িয়ে দিয়েছে কয়েকগুণ। বিচার প্রার্থী জনগণ ছাড়া ও কারণে অকারণে বাগান দেখতে আসছেন ফুলপ্রেমী মানুষজন। শুধু যে বাহারি ফুল ই আছে তা কিন্তু নয় তার পাশাপাশি লাগানো হয়েছে বিভিন্ন জাতের ফলের গাছ ও শাক সবজি। আইনী সেবা কেন্দ্রের এমন মনোহারিতায় শহরজুড়ে প্রশংসিত হয়েছেন ওসি শ্যামল বণিক।

মননে মগজে ফুলের সুশ্রী ধারণ করে আইনের সেবা প্রদানে প্রত্যয় জানালেন ওসি। বিচার প্রার্থী জনগণের প্রশান্তি লাভে থানা প্রাঙ্গনে বাগান গড়ার কথাও জানান তিনি।

থানার ওসি বলেন,সাধারণ জনগণ থানাকে একটু অন্যভাবে দেখেন। আমি মনে করি পুলিশ জনগণের বন্ধু। থানা প্রাঙ্গনে ফুলের বাগন হলো পুলিশ ও জনতার বন্ধুত্বের নিদর্শন। যার মাধ্যমে বিচার প্রার্থী জনগণ প্রশান্তি লাভ করতে পারবেন।