Main Menu

সিলেট শহীদ মিনারে শোক দিবসে এ কেমন ‘অশ্রদ্ধার প্রদর্শনী’?

চৌধুরী মিনহাজঃ আজ ১৫ই আগস্ট, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪১তম শাহাদাৎ বার্ষিকী, জাতীয় শোক দিবস। জাতীয় শোক দিবসে কয়েকজন ফটোসাংবাদিক সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গিয়েছিলেন শ্রদ্ধা নিবেদনের কিছু স্থির চিত্র ধারণ করতে। কিন্তু বাঙ্গালীদের শ্রদ্ধা নিবেদন দেখে রীতিমত অবাক হতে হয়েছে তাদের।

আজ শহীদ মিনারে প্রচুর জনসমাগম দেখে দেশপ্রেমিকের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে এমন চিন্তার পিছনে যুক্তি খোঁজে পাননি তারা। জিন্স-শার্ট আর পাজামা পাঞ্জাবী পরা শিক্ষিত সুবোধ বালকদের অনেকেই জানে না শহীদ বেধিতে জুতো নিয়ে উঠা নিষেধ। অনেকে আবার শহীদ বেদীকেই জুতো রাখার ভাগাড়ে পরিণত করেছে। পায়ে জুতো পরে মুখে দাঁত কেলানো হাসি নিয়ে সেলফি তোলা অনেক তরুণকে যখন বলা হলো জুতো পায়ে শহীদ বেধিতে উঠা তো শহীদদেরই অশ্রদ্ধা করা। তখন তাদের ভাব দেখে মনে হয়েছে ভিন গ্রহের কোন জীবের মুখোমুখি হয়েছেন তারা। অনেকে আবার নিজেদের রাজনৈতিক পরিচয় দিয়ে হম্বিতম্বি করার অপপ্রয়াসে লিপ্ত হোন।

আর আজ শুধু তরুনরাই যে জুতা পায়ে শহীদ বেধিতে উঠেছেন তা না আজ শহীদ বেধিতে অনেক বৃদ্ধ, যুবক, তরুন-তরুনীদের, নারীদেরও জুতা পায়ে দেখা যায়। জুতা পায়ে দিয়ে তাদের অবাধ ঘুরে ফেরায় বাধা দেয়ার ছিলো না কেউ। যেন এ এক রাম রাজত্ব, যার যা খুশী সে তাই করে বেড়াচ্ছে।

তাদের শ্রদ্ধা নিবেদন দেখে মনে হয়েছে শুধু আত্বপ্রচারের জন্যই এই আয়োজন! তা হলে কি শহীদ মিনারে ফুল দেওয়া শুধুই আনুষ্ঠানিকতা? শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা নয়? শ্রদ্ধা জানিয়ে দেওয়া ফুলের প্রতি কেন এতো অবহেলা? এমন অনেক প্রশ্নই তুলেছে জনসাধারণ।






Related News

Comments are Closed