Main Menu

গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত হাইকোর্টে স্থগিত

ডেইলি বিডি নিউজঃ দ্বিতীয় দফায় গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্তেরর ওপর ৬ মাসের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে ২৩ ফেব্রুয়ারি গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে গ্যাসের দাম বাড়ানো কেন অবৈধ ও আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার জনস্বার্থে দায়ের করা এক রিটের শুনানি নিয়ে   বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ নিষেধাজ্ঞা দেন।

এর ফলে আগামী ১ জুন থেকে ৯০০ এবং ৯৫০ টাকা মূল্য নির্ধারণ করে গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত স্থগিত থাকবে।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম। রাষ্টপক্ষে আদালতে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু্। বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন, কমিশনের চেয়ারম্যান ও সচিবকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এর আগে গতকাল সোমবার আদালতে রিট আবেদনটি দায়ের করেন কনজুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) -এর কনজুমার কমপ্লেইন হ্যান্ডলিং ন্যাশনাল কমিটির আহ্ববায়ক স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন।

আজ আদালতে আইনজীবী সাইফুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন আইন, ২০০৩ এর ৩৪ ধারায় বলা হয়েছে, কমিশন কর্তৃক নির্ধারিত ট্যারিফ কোনো অর্থ বছরে একবারের বেশী পরিবর্তন করা যাইবে না, যদি না জ্বালানি মূল্যের পরিবর্তনসহ অন্য কোনরূপ পরিবর্তন ঘটে৷  কিন্তু সরকার ২৩ তারিখের গণগবিজ্ঞপ্তি জারি করে ১ মার্চ ও ২ জুন থেকে দুই দফায় বাড়ানো হয়েছে।

এর পর আদালত দ্বিতীয় দফায় গ্যাসের দাম বৃদ্ধির ওপর ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দিয়ে রুল জারি করেন।

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের পক্ষ থেকে দুই ধাপে মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। আগামী ১ মার্চ থেকে প্রথম দফা এবং ১ জুন থেকে দ্বিতীয় দফায় মূল্যবৃদ্ধি কার্যকর হবে। মূল্যবৃদ্ধির ফলে আগামী ১ মার্চ থেকে আবাসিক খাতে দুই চুলার জন্য ৮০০ এবং এক চুলার জন্য ৭৫০ টাকা গুনতে হবে গ্রাহকদের। দ্বিতীয় ধাপে ১ জুন থেকে দুই চুলার জন্য ৯৫০ এবং এক চুলার জন্য ৯০০ টাকা দিতে হবে।






Related News

Comments are Closed