Main Menu

সিদ্দিকুরের পরিবারের কাছে ক্ষমা চাইলেন শিক্ষামন্ত্রী, চাকুরির প্রতিশ্রুতি দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডেইলি বিডি নিউজঃ পরীক্ষার তারিখ ঘোষণার দাবিতে আন্দোলনে অংশ নিয়ে চোখ হারানো সিদ্দিকুরের পরিবারের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। তার পরিবারের কাছে দুঃখ প্রকাশ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, অতি উৎসাহিদের কারণেই মেধাবী এই তরুণের চোখের আলো শেষ হয়ে গেলো।

ঘটনার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে অভিযুক্ত করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমাদের শিক্ষা পরিবারের একটি ছেলের সঙ্গে এমন দুঃখজনক ঘটনা ঘটলো। বিভিন্ন সময় পুলিশেদের কাছ থেকে আমরা সাহায্য পাই এজন্য তারা ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্য হলেও কিছু অতি উৎসাহি কর্মকর্তার বিষয়ে সতর্ক হতে হবে।

বর্তমানে ভারতের চেন্নাইয়ে শঙ্কর নেত্রালয়ে চিকিৎসাধীন তিতুমীর কলেজের ছাত্র সিদ্দিকুর রহমান। তবে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অস্ত্রোপচারের পরও চোখের আলো ফিরবে না।

এদিকে দেশে ফিরলেই সরকারি চাকুরি পাবে পুলিশের টিয়ার শেলে দৃষ্টিশক্তি হারাতে বসা কলেজ ছাত্র সিদ্দিকুর রহমান এই মর্মে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। মঙ্গলবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ‘চিকুনগুনিয়া ২০১৭: ঢাকা এক্সপেরিয়েন্স’ শীর্ষক সেমিনারে এ প্রতিশ্রুতি দেন মন্ত্রী।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সিদ্দিকুর দেশে ফিরলেই আমি তাকে চাকরি দেব। সরকারি ওষুধ কোম্পানি ‘এসেনশিয়াল ড্রাগস কোম্পানি লিমিটেড’ বা ইডিসিএলে তাকে চাকরি দেয়া হবে।

গত (২০ জুলাই) বৃহস্পতিবার শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনের সড়কে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত রাজধানীর সাতটি কলেজ ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা কলেজ, তিতুমীর কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ ও সরকারি বাঙলা কলেজের শিক্ষার্থীরা রুটিনসহ পরীক্ষার তারিখ ঘোষণার দাবিতে গত বৃহস্পতিবার শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনের রাস্তায় অবস্থান নেন।

একপর্যায়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। এ সময় শিক্ষার্থীদের লাঠিপেটা করা হয়। ওই দিন পুলিশের ‘কাঁদানে গ্যাসের শেলে’ চোখে গুরুতর আঘাত পান তিতুমীর কলেজের ছাত্র সিদ্দিকুর।






Related News

Comments are Closed