Main Menu

কোটা আন্দোলনের ৩ নেতাকে তুলে নেয়ার পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে!

ডেইলি বিডি নিউজঃ কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন ছাত্রকে তুলে নেয়ার অভিযোগ উঠার ঘণ্টাখানেকের মধ্যে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

সোমবার বিকাল ৪টার দিকে কোটা সংস্কার আন্দোলনের ফেসবুক পেজে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রাজধানীর চাঁনখারপুল এলাকা থেকে উঠিয়ে নেয়া সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে। বিকেলে এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে।’

এর আগে ঢাবির সেন্ট্রাল লাইব্রেরির সামনে সংবাদ সম্মেলন শেষে একটি সাদা মাইক্রোবাসে পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুর, রাশেদ খান ও ফারুককে তুলে নেয়ার অভিযোগ করে কেন্দ্রীয় নেতারা। একই সঙ্গে তাদেরকে ছেড়ে না দেয়া হলে আবারও আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে বলেও জানানো হয়।

এ বিষয়ে ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার (ডিবি) আব্দুল বাতেন জানান, ডিবি পরিচয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনের আমরা কাউকে আটক কিংবা ডাকিনি। অন্য কেউ আটক করেছে কি-না তাও জানি না।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) ওবায়দুর রহমান বলেন, ডিএমপি সদর দফতরে ক্রাইম কনফারেন্স চলছে। কাউকে ফোনে পাওয়া যাচ্ছে না। বিষয়টির সত্যতা সম্পর্কে সঙ্গত কারণে জানাতে পারছি না। পরে জানানো হবে।

দৈনিক ইত্তেফাকের একটি সংবাদের প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় গ্রন্হাগারের সামনে আজ (সোমবার) সংবাদ সম্মেলন করেন আন্দোলনকারীরা। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন নুরুল হক নুর, যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান ও ফারুক হাসান। এ সময় তারা বিকেল ৫টার মধ্যে ইত্তেফাককে ক্ষমা চাইতে বলেন। অন্যথায় মঙ্গলবার থেকে সকল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে পত্রিকাটি বর্জনের হুমকি দেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও অভিযোগ করা হয়, একটি কুচক্রিমহল আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে। প্রধানমন্ত্রী যখন ছাত্র সমাজের ক্ষোভের কথা বুঝতে পেরে দাবি মেনে নিয়েছেন তখন একটি মহল এটি বানচালের চেষ্টা করছে।

 






Related News

Comments are Closed