Main Menu

ঢাবির তিন ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ছিনতাইয়ের অভিযোগ, থানায় জিডি

ডেইলি বিডি নিউজঃঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল শাখার তিন ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এ ঘটনা ঘটে। এসময় অভিযুক্তরা ভুক্তভোগীর মারধরও করে। ছিনিয়ে নেয়া হয়, মোবাইল ফোন, মানিব্যাগ ও কাঁধে থাকা ব্যাগ। মানিব্যাগে ৮ হাজার টাকা ছিল বলে ভুক্তভোগী প্রবীর দাবি করেছেন।

তিনি আগাঁরগাওয়ে একটি স্টিল স্ট্রাকচার কোম্পানিতে চাকরি করেন। অভিযুক্তরা হলেন- হাজী মুহম্মদ মুহসীন হল শাখা ছাত্রলীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক আলী আব্বাস, জিয়া হলের উপ-দপ্তর সম্পাদক আকতারুল করিম রুবেল ও ছাত্রলীগকর্মী রকি।
এ ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন করেছেন ভুক্তভোগী।

শাহবাগ থানার তদন্ত কর্মকর্তা চমক বলেন, এ ঘটনায় মামলা হবে। ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ভুক্তভোগী বলেন, আমি উদ্যানে বসা ছিলাম। হঠাৎ আলী আব্বাস, রুবেল ও রকি আমার পরিচয় জানতে চায়। যখনই শুনে আমি ক্যাম্পাসের না সাথে সাথে আমাকে মারধর করে সঙ্গে থাকা ব্যাগ, মানিব্যাগ ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। এসময় তারা আমার ডিবিবিএল অ্যাকাউন্টের নম্বরও নেয়। মানিব্যাগ থেকে আট হাজার টাকা ছিল বলে জানান প্রবীর। তিনি বলেন, পরে আমি আমার এক পরিচিত ভাইয়ের মাধ্যমে অভিযুক্তদেরকে সনাক্ত করি। যদিও অভিযুক্তদের দাবি তারা ভুক্তভোগীর কাছে গাজা পেয়েছেন। তাই তাকে মারধর করা হয়েছে, ছিনতাইয়ের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

এসময় তারা দাবি করেন শাহবাগ থানার এসআই শাহেব আলী প্রবীরের কাছ থেকে গাজা উদ্ধার করেছেন। যদিও এসআই শাহেব আলী গাজা উদ্ধারের যে দাবি করা হচ্ছে তা সঠিক নয় বলে মন্তব্য করেছেন। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস বলেন, আমরা অপরাধীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রাব্বনী বলেন, আমি ভুক্তভোগীকে আইনি প্রক্রিয়ায় যেতে বলেছি। কোন শিক্ষার্থী তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।






Related News

Comments are Closed