Main Menu

বঙ্গভবনের ফটক থেকে ফেরত গেলেন বীর প্রতীক!

ডেইলি বিডি নিউজঃ বঙ্গভবনে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে ফটক থেকেই ফিরে গেছেন সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক। তিনি ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান।

বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বুধবার বিকেল ৩টার দিকে বঙ্গভবনের ফটকে গেলে সেখানে দায়িত্বরত কর্মকর্তারা তাকে ফেরত যেতে বলেন।

সৈয়দ ইব্রাহিম তার ফেসবুক পেজে ওই ঘটনার বর্ণনা দেন। তার স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো- ‘বড় ঘটনা, ছোট বর্ণনা! ছবিগুলি দ্রস্টব্য। ১৬-১২-২০১৫; আজ মহান বিজয় দিবসের বিকালে, বংগভবনের গেইটে, বিব্রত হলাম। সেই ঘটনা শেয়ার করছি। ১৯৮০ সাল থেকেই বংগভবনে দাওয়াত পাই- বিজয় দিবস, স্বাধীনতা দিবস, এবং দুই ঈদের দিবস। এই পর্যন্ত কোন ব্যত্যয় হয়নি। আজ হল। হওয়াটা বড় কথা, তার থেকেও বড় কথা, কেন হল সেটাই বড় কথা? একই প্রসঙ্গে ইংরেজীতে একটা পোস্ট দিয়েছি ঘন্টা-খানিক আগে— ঐখানে দুই-চারটা বাক্য বেশী আছে হয়তো।

দাওয়াত পেয়ে বংগভবনে গেলাম। গেইট থেকে ফেরত দিলেন এস এস এফ এর ক্যপ্টেন এবং ট্রাফিক পুলিশের সারজেন্ট। বল্লেন, আপনাকে ফেরত যেতে হবে। ফেরত চলে আসলাম। বিষয়টা বোধগম্য হলনা……। দাওয়াত না দিলে, মনে মনে বলতাম যে, রাজনীতিবিদ ইবরাহিম-কে গোয়েন্দা সংস্থাগুলি ছাড়পত্র দেয়নি। কিন্তু দাওয়াত দিয়ে গেইট থেকে ফেরত দেওয়াটা…….?? মুক্তিযুদ্ধের “বীর প্রতীক” বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে যাবেন না?…?

ফেইস বুকে বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা ইতিমধ্যে জানিয়েছি, সকলকে পুনরায় সম্ভাষন ও অভিনন্দন **বিকাল বা সন্ধ্যা ৪-৪৬, বিজয় দিবস ২০১৫, ঢাকা।’

কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমান  বলেন, ‘বঙ্গভবন থেকে চিঠি পাঠানো হলো, আবার তার সামনে থেকেই ফেরত দেওয়া হলো। দলমত নির্বিশেষে একজন বীর প্রতীক ১৬ ডিসেম্বরের বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে যাবেন। কিন্তু তাকে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হলো।’






Related News

Comments are Closed