Main Menu

‘ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ একদিন এক রাষ্ট্র হবে’

ডেইলি বিডি নিউজঃ ভারতের ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা দলের (বিজেপি) ন্যাশনাল সেক্রেটারি জেনারেল রাম মাধম মনে করেন একদিন ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশ এক হবে।

৬০ বছর আগে ভারত ভেঙে দুটি রাষ্ট্র, পরে বাংলাদেশ নামক আরেকটি রাষ্ট্রের জন্ম হয়েছে; এ তিনটি রাষ্ট্র এক হয়ে আবারো অখণ্ড ভারত প্রতিষ্ঠা হবে।

কাতারভিত্তিক আল জাজিরা নিউজ চ্যানেলে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন। বৃহস্পতিবার আল জাজিরার অনলাইনে সংস্করণে ‘হেড টু হেড’ নামে ওই সাক্ষাৎকারের অংশবিশেষ প্রকাশ করা হয়।

‘রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস) এখনও বিশ্বাস করে ৬০ বছর আগে ভাগ হয়ে যাওয়া ভারত ঐতিহাসিক কারণেই আবার এক হবে। দেশগুলোর জনমনের আকাঙ্ক্ষা থেকেই আবারও অখণ্ড ভারতবর্ষের সৃষ্টি হবে।’

আরএসএসের এ দাবির উল্লেখ করে বিজেপির এই নেতা বলেন, আরএসএসের মতো আমিও এই দৃষ্টিভঙ্গি ধারণ করি। তার অর্থ এই নয় যে, যুদ্ধের মধ্য দিয়ে এমনটি ঘটবে। যুদ্ধ ছাড়াই, জনগণের আকাঙ্ক্ষা থেকেই এসব রাষ্ট্র মিলে একটি অখণ্ড ভারতবর্ষ হবে।

মাধব এক সময়ের আরএসএসের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ছিলেন। ২০১৪ সালে বিজেপিতে যোগ দিয়ে ন্যাশনাল জেনারেল সেক্রেটারি নির্বাচিত হন। এ বছরের শুরুতে এক বিবৃতিতে তিনি বলেছিলেন, ‘ভারত ছিল একটি হিন্দু রাষ্ট্র। এর ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, এই ভূখণ্ডে একটি আলাদা জীবনধারা ছিল, ছিল আলাদা সংস্কৃতি ও সভ্যতা।

‘হেড টু হেড’ অনুষ্ঠানে আল জাজিরার মেহেদি হাসান এ বিষয়টি মনে করিয়ে দিলে মাধব বলেন, ‘আমরা এটাকে হিন্দু রাষ্ট্রই বলি। এতে তোমার আপত্তি আছে? ভারতের একটিই সংস্কৃতি। আমরা এক সংস্কৃতির, এক জনগণ ও এক জাতির।’

ভারতে চলমান অসহিষ্ণুতার অভিযোগ তুলে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের অংশ হিসেবে বেশ কয়েকজন বিখ্যাত লেখক ও বুদ্ধিজীবী তাদের আকাদেমি পদক ফিরিয়ে দিয়েছেন- বিষয়টি নিয়ে জিজ্ঞেস করা হলে মাধব বলেন, সরকাররের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন এবং বিশেষত পুরো ভারতের ভাবমূর্তিকে ছোট করতেই এ জাতীয় বিতর্ক সৃষ্টি করা হচ্ছে। আন্দোলনের জন্য তাদের এ পদ্ধতি সম্পূর্ণ ভুল।

জম্মু ও কাশ্মীর বিষয়ক বিজেপির দায়িত্বপ্রাপ্ত এই বিশেষ দূত এ দুটি অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে তার বক্তব্যে বলেন, পাকিস্তানের দখলে থাকা কাশ্মীরই সবেচেয়ে বড় সমস্যা। কাশ্মীর ভারতের অখণ্ড অংশ। এখন এটা প্রমাণিত হচ্ছে এবং সামনেও হবে যে, কাশ্মীর ভারতেরই অংশ।

 






Related News

Comments are Closed