Main Menu

দিরাইয়ে বন্দুকধারীর গুলিঃ ৭ জন ওসমানী হাসপাতালে ;থানায় অভিযোগ

দিরাই প্রতিনিধি।। কথায় কথায় বন্দুক, কথায় কথায় গুলি এ হলো দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নের রাজনগর (হালেয়া) গ্রামের চিত্র।

গত ১৬ মে শনিবার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে লাল মিয়ার নেতৃত্বে অবৈধ ৪/৫ টা বন্দুক দিয়ে অতর্কিত হামলা চালায় লাল মিয়ার বাহিনী। লাল বাহিনীর অবৈধ বন্দুকের গুলিবর্ষণে গুরুতর ভাবে গুলীবিদ্ধ ৭ জনসহ আহত্ হোন মোট ২০ জন।

বন্দুকধারীদের অতর্কিত গুলা গুলিতে ছালিক মিয়া (৬০) সহ ৭ জনের অবস্থা সংকটাপন্ন অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

বন্দুকধারী সবাই একাদিক অস্ত্র মামলাসহ (৩২৬ ধারা মামলা), নারী ও শিশু নির্যাতন/কুপানো (৩২৬ মামলার আসামী।
২/৩ জন কয়েক মাসে জেলেও ছিল এবং বর্তমানে জামিনে আছে। মামলা বিচারাধীন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, আসামি লাল মিয়ার সাথে জায়গা জমি নিয়ে পূর্ব বিরোধ রয়েছে।এরই জের ধরে ঐ দিন গ্রাম্য এক সালিশী বৈটক শেষে বাড়ী ফেরার সময় আসামীদের বাড়ির কাছাকাছি আসা মাত্রই অতর্কিত গুলি ও দেশীয় অস্ত্রদিয়ে হামলা শুরু করে লাল মিয়ার বাহিনী, আত্নরক্ষার্তে বাদীগন চিতকার শুরু করলে এলাকার বিশিষ্ট মুরুব্বি ও যুবসমাজ এগিয়ে আসলে বন্দুকধারীরা পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় দিরাই থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন গুলিবর্ষণে আহত ছালিক মিয়ার মামাত বোনের স্বামী সুনু মিয়া।অভিযোগের সত্যতা জানতে দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে এম নজরুলের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তদন্ত চলছে, এবং উল্লেখিত আসামীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালানো হচ্ছে।






Related News

Comments are Closed