Main Menu

হাইকোর্টের আদেশ: লোভাছড়া কোয়ারি থেকে পাথর সরানো যাবে না

ডেইলি বিডি নিউজঃ সিলেটের লোভাছড়া কোয়ারির পাথর সরিয়ে নিতে ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিনের পক্ষে দেওয়া আদেশটি রিকলের মাধ্যমে বাতিল করেছেন হাইকোর্টের ভার্চুয়াল কোর্ট। মঙ্গলবার দুপুরে সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনের বিচারপতি জেবিএম হাসান শুনানি শেষে এই আদেশ দেন। ফলে লোভাছড়া কোয়ারি থেকে পাথর সরানোর সুযোগ আর থাকছে না।

কানাইঘাটের লোভাছড়া পাথর কোয়ারির ইজারাদার ছিলেন মোস্তাক আহমদ পলাশ। চলতি বছরের ১৩ এপ্রিল তার ইজারার মেয়াদ শেষ হয়। এর প্রেক্ষিতে ২৮ মে খনিজ মন্ত্রণালয় কোয়ারিটি সমজিয়ে দিতে ইজারাদারকে পত্র দেন। কিন্তু কোয়ারিটি সমজিয়ে না দিয়ে ৩ জুন তিনি কোয়ারিতে থাকা পাথর সরিয়ে নিতে সময় চান। এর প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট তাকে ১৫ই জুন পর্যন্ত সময় দেন। এরই মাঝে ৯ই জুন লোভাছড়া কোয়ারির পাথর ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিনও পাথর সরিয়ে নিতে হাই কোর্টের বিচারপতি জেবিএম হাসানের আদালতে আবেদন করে সময় প্রার্থনা করেন। তার আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত গিয়াস উদ্দিনকে এক মাস সময় দেন।

এদিকে সিলেটের স্থানীয় অধিবাসী নজরুল ইসলাম ও খুরশেদ আলম শিপলু একই আদালতে সময় বাড়ানোর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আবেদন জানান, ইজারাদার এবং আবেদনকারী যোগসূত্র করে এক কোর্টে এক দফা সময় বর্ধিত করার পর অপর কোর্ট থেকে আরো ১ মাসের সময় নিয়েছেন। তাদের এই আবেদনের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার দুপুরে ভার্চুয়াল কোর্টে উভয় পক্ষের শুনানি হয়। শুনানি শেষে বিচারপতি জেবিএম হাসান গিয়াস উদ্দিনের পক্ষে দেওয়া পূর্বের দেওয়া আদেশটি রিকল করেন।

আবেদনকারীর পক্ষের আইনজীবি ব্যারিস্টার মো. আব্দুল হালিম কাফি জানান, পাথর ব্যবসায়ী গিয়াস উদ্দিনের পক্ষে ভার্চুয়াল কোর্ট যে আদেশ দিয়েছিলেন সেটি রিকল করায় এখন আর পুর্বের আদেশের কার্যকারিতা নেই।






Related News

Comments are Closed