Main Menu

তাহিরপুরে ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যুতের লাইনে লাল নিশান

তাহিরপুর সংবাদদাতা : তাহিরপুরে বন্যার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় বিদ্যুৎ লাইন চেক ও মানুষকে সচেতন করার লক্ষে মেইন লাইনের তারে জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে লাল নিশান টানাচ্ছে পল্লী বিদ্যুৎ লাইনম্যানরা। সোমবার সকাল থেকে দিনব্যাপী তাহিরপুর পল্লী বিদ্যুৎ অভিযোগ কেন্দ্রের অধীনে রক্তি নদীর উপর ফতেহপুর, বাগুয়া অনন্তপুর, নয়াবারুঙ্কা, রাজেন্দ্রপুর, বসন্তপুর ও বৌলাই নদীর উপর রতনশ্রী ও আনন্দনগর গ্রামে যেখানে বন্যার পানি ও বিদ্যুতের তার দূরত্ব কাছাকাছি সে সমস্ত ঝুঁকিপূর্ণ স্থানগুলোতে লাল নিশান টানিয়েছে পল্লী বিদ্যুৎ লাইনম্যানরা।

শ্রীপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের আনন্দনগর গ্রামের পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সদস্য নজির হোসেন জানান, পল্লী বিদ্যুতের লাইনম্যানরা বিদ্যুতের তারে লাল নিশান টানাচ্ছে। এতে করে নদীতে নৌকাযোগে চলাচলকারীরা সতর্কতার সাথে নৌকা চালাচ্ছে।

তাহিরপুর পল্লী বিদ্যুৎ অভিযোগ কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, সাম্প্রতিক বন্যায় নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে পানি ও তারের দূরত্ব কমে গেছে। এতে করে নদীতে চলাচলকারী লোকজন মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। জনগণের জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে তারা বিদ্যুতের মেইন লাইনের তারে জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে লাল নিশান টানাচ্ছে।

তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ সিনিয়র সহসভাপতি অধ্যাপক আলী মর্তূজা বলেন,দু’দিন ধরে আমি বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন করেছি। নদীর পানি ও বিদ্যুতের তারের দূরত্ব দেখে আমার খুবই ভয় লেগেছে। পল্লী বিদ্যুৎ কর্মীরা বিদ্যুতের তারে লাল নিশান টানানোর কারণে নৌকায় চলাচলকারীরা দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পাবে।






Related News

Comments are Closed