Main Menu

নারী পুলিশ সদস্যদের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষায় অনলাইন কাউন্সিলিং

ডেইলি বিডি নিউজঃ আমাদের দৈনন্দিন জীবনের কাজগুলো সঠিকভাবে সম্পাদনের জন্য শারীরিক সুস্থতা যেমন দরকার, তেমনি দরকার পরিপূর্ণ মানসিক সুস্থতা। তবে, কারো কাজের ধরণ যদি স্বাভাবিক মাত্রার চেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জিং এবং কষ্টসাধ্য হয়ে থাকে, সেক্ষেত্রে এই দুয়ের সুস্থতার বিষয়টি আরো বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠে।

জননিরাপত্তা বিধান এবং জনশৃঙ্খলা রক্ষাসহ দেশের যেকোনো প্রয়োাজনে বা সংকটে প্রতিদিন অজ¯্র দায়িত্ব পালন করতে হয় বাংলাদেশ পুলিশের সদস্যদের। এসকল দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে অনেক সময় নানা রকম ঝুঁকি এবং মানসিক চাপের মধ্য দিয়ে যেতে হয় তাদের। যার ফলে কোনো কোনো সদস্যের মধ্যে কখনো কখনো মানসিক বিষাদগ্রস্থতায় ভোগার প্রবণতা দেখা দিয়ে থাকে। বিভিন্ন বাস্তবিক কারণে নারী পুলিশ সদস্যদের ক্ষেত্রে এ সমস্যা অপেক্ষাকৃ প্রকট হয়ে থাকে। সাধারণত কর্মক্ষেত্রে নিয়মিত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি নারী পুলিশ সদস্যদের বাড়তি কিছু পারিবারিক সম্পৃক্ততার কারণে এমনটি হয়ে থাকে।

যেসকল নারী পুলিশ সদস্য পরিবার পরিজন ছেড়ে ব্যারাকে থাকেন, তাদের কর্মক্ষেত্রের দৈনন্দিন দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি দীর্ঘদিন পরিবার থেকে দূরে থাকা এবং পরিবারের সদস্যদের বিভিন্ন প্রয়োজনে পাশে থাকতে না পারার কারণে তাদের মাঝে কখনো কখনো বিষন্নতা আসতে পারে।

অন্যদিকে, যেসকল নারী পুলিশ সদস্য কর্মস্থলে পরিবার নিয়ে বসবাস করেন, তাদের ক্ষেত্রেও কাজের ব্যস্ততার কারণে পরিবারে পর্যাপ্ত সময় দিতে না পারার কারণে এবং কারো কারো বাড়িতে বৃদ্ধ/অসুস্থ বাবা-মায়ের পাশে না থাকতে পারার কারণে একধরণের মানসিক অবসাদ আসতে পারে। এর বাইরেও আরো অনেক পেশাগত, ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কারণও থাকতে পারে।

এই সবকিছুই নারী পুলিশ সদস্যদের উপর বাড়তি মানসিক চাপ তৈরী করে থাকে, যার প্রভাব পরে তাদের কর্মক্ষেত্রে। এমন পরিস্থিতিতে জনগণকে মানসম্মত সেবা প্রদান এবং নিজেদের শারীরিক ও মানসিক সুস্থতা ও সুরক্ষা নিশ্চিত করা নারী সদস্যদের জন্য একটি বাড়তি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায়।

এমন পরিস্থিতিতে কর্মক্ষেত্রে নারী পুলিশ সদস্যদের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে নওগাঁ জেলা পুলিশের নারী পুলিশ সদস্যদের প্রতি সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে তাঁদের পাশে দাঁড়িয়েছে জেলাটির পুলিশ প্রশাসন। জেলা পুলিশের কন্সটেবল হতে ইন্সপেক্টর পর্যন্ত সকল নারী পুলিশ সদস্যদের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও সহকারী পুলিশ সুপার পদমর্যাদার দুইজন নারী পুলিশ অফিসারের সমন্বয়ে সম্প্রতি সেখানে চালু করা হয়েছে জুম ভিডিও কলিং এর মাধ্যমে “কাউন্সিলিং সার্ভিস”।

উক্ত সার্ভিসের মাধ্যমে দায়িত্বপ্রাপ্ত নারী অফিসারগণ তাদের নারী সহকর্মীদের যেকোনো সমস্যা নিয়ে ওয়ান-টু-ওয়ান খোলামেলা আলোচনা করেন এবং তাদের যেকোনো প্রয়োজনে উর্ধতন কর্মকর্তাগণ যেন দ্রæত তাদের সেবা নিশ্চিত করতে পারেন তার জন্য বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছেন।






Related News

Comments are Closed