Main Menu

দূর্নীতি ও অনিয়মের আখড়া দোয়ারাবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে সোমবার বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দেন স্থানীয় মাস্টার পাড়া, নৈনগাঁও, মাঝের গাঁও ও মংলার গাঁও গ্রামের আব্দুল মজিদ, দেলোয়ার হোসেন গংরা।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, দোয়ারাবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন যোগদানের পর থেকে সপ্তাহে দু’একদিন ঘন্টা তিনেক অফিস করে সরকারি কোয়ার্টারে অবস্থান না করে চলে যান সিলেটের বাসায়। এছাড়া সরকারি গাড়ি পারিবারিক কাজে ব্যবহারের অভিযোগও রয়েছে।

এদিকে অফিস সহকারি হানিফ ১৫-২০ বছর ধরে একই কর্মস্থলে রয়েছেন। ২০১৫-১৯ সাল পর্যন্ত কোয়ার্টার থেকে উঠানো সরকারি গ্যাসবিলের টাকা আত্মসাতসহ ডেলিভারি রোগীর ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া দেয়ার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
এছাড়াও জরুরি বিভাগের ডাক্তারদের সময়মতো না পাওয়ায় সেবাবঞ্চিত হচ্ছেন আগত রোগিরা। মেডিকেল অফিসার সিফাত আরা সামরিন ও সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে রোগীদের সাথে অসদাচরণের অভিযোগও রয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন অভিযোগকারীরা।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অফিস সহকারি হানিফ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগ ভিত্তিহীন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোনিয়া সুলতানার ফোন দিলে রিসিভ হয়নি।






Related News

Comments are Closed