Main Menu

মার্চের মধ্যে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য পণ্য ডিসপ্লে সেন্টার খোলা হবে- সিসিক মেয়র

ডেইলি বিডি নিউজঃ সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেছেন, সিলেটের নারী উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। দেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে নারী উদ্যোক্তাদের কার্যক্রমে সহযোগিতা করা আমাদের সকলের নৈতিক দায়িত্ব। তিনি সিলেট চেম্বার অব কমার্স ও নারী উদ্যোক্তাদের দাবীর প্রেক্ষিতে আগামী মার্চ মাসের মধ্যে সিলেট শহরে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য একটি পণ্য ডিসপ্লে সেন্টার খোলার আশ্বাস প্রদান করেন।

তিনি বলেন, নারী উদ্যোক্তাদেরকে গতানুগতিক ব্যবসাগুলো থেকে বেরিয়ে এসে ‘ক্রিয়েটিভ’ মনমানসিকতা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। সৃজনশীলতা না থাকলে নারী উদ্যোক্তারা নিজেদের অভিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবেন না। তিনি আরো বলেন, সিলেটের নারী উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত খাদ্য সামগ্রী, পিঠা-পুলি ইত্যাদি বর্তমানে খুব জনপ্রিয় এবং এগুলো আমাদের অতিথিপরায়ন ঐতিহ্যের ধারক।

তিনি বলেন, সৃজনশীল যেকোন পরিকল্পনা নিয়ে আমাদের সাথে যোগাযোগ করা হলে আমরা অবশ্যই সেটি বাস্তবায়নে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবো। তিনি সিলেটের ঐতিহ্যবাহী বাঁশ ও বেতশিল্পে এগিয়ে আসার জন্য নারী উদ্যোক্তাদের আহবান জানান। তিনি ব্যাংকগুলোকে নারী উদ্যোক্তাদের ঋণ গ্রহণ প্রক্রিয়া সহজীকরণের অনুরোধ জানান। তিনি উল্লেখ করেন, সম্প্রতি শেভরনের সাথে সিলেট সিটি কর্পোরেশন একটি চুক্তি স্বাক্ষর করতে যাচ্ছে, যে চুক্তি অনুসারে শেভরন সিলেটের তরুণ-তরুণীদের প্রশিক্ষণ প্রদান করবে এবং প্রশিক্ষণ অনুযায়ী কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিবে।

তিনি সম্প্রতি সিলেট শহরের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়নের জন্য সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার ও পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান। এছাড়াও তিনি সরকারী সংস্থাগুলোকে স্ব-স্ব অবস্থানে থেকে জনগণের কল্যাণে কাজ করে যাওয়ার আহবান জানান।

আজ বৃহস্পতিবার নগরের মির্জাজাঙ্গালস্থ নির্ভানা ইন প্রাঙ্গনে দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র উদ্যোগে ৩ দিনব্যাপী “এসসিসিআই নারী উদ্যোক্তা সম্মেলন-২০২১” এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও “সিলেটের নারী উদ্যোক্তাদের প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরণের উপায়” শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সিলেট চেম্বারের সভাপতি আবু তাহের মোঃ শোয়েব এ সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ এর পুলিশ কমিশনার মোঃ নিশারুল আরিফ, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল ও সিলেট উইমেন্স চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি স্বর্ণলতা রায়। এছাড়াও সেমিনারের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উইমেন এন্ড ই-কমার্স (উই) এর সভাপতি নাসিমা আক্তার নিশা।

সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ এর পুলিশ কমিশনার মোঃ নিশারুল আরিফ, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল ও সিলেট উইমেন্স চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি স্বর্ণলতা রায়। বক্তব্যে তারা নারী উদ্যোক্তাদের মধ্যে উৎসাহ, উদ্দীপনা বৃদ্ধি লক্ষ্যে এরকম একটি সম্মেলন আয়োজনের জন্য সিলেট চেম্বার অব কমার্সকে ধন্যবাদ জানান। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বারের নারী উদ্যোক্তা উন্নয়ন সাব কমিটির আহবায়ক সামিয়া বেগম চৌধুরী। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি চন্দন সাহা ও সহ সভাপতি তাহমিন আহমদ। অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী পর্ব শেষে “সিলেটের নারী উদ্যোক্তাদের প্রতিবন্ধকতা ও উত্তরণের উপায়” শীর্ষক একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন উইমেন এন্ড ই-কমার্স (উই) এর সভাপতি নাসিমা আক্তার নিশা। অনুষ্ঠানে নারী সমাজের উন্নয়নে ও বিভিন্ন সেক্টরে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য নারী উদ্যোক্তাদেরকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। সম্মেলনে নারী উদ্যোক্তাদের দ্বারা পরিচালিত বিভিন্ন সেক্টরের ৬২টি স্টল স্থান পেয়েছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি আবু তাহের মোঃ শোয়েব বলেন, পিছিয়ে পড়া নারী সমাজের প্রতি দায়িত্ববোধ থেকে আমরা সম্মেলটি আয়োজনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা নারীর ক্ষমতায়ন ও নারীদেরকে এগিয়ে নিতে অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি সিলেট চেম্বারের দাবীর প্রেক্ষিতে আগামী মার্চের মধ্যে সিলেট শহরে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য একটি পণ্য ডিসপ্লে সেন্টার স্থাপনের ঘোষণার জন্য সিসিক মেয়রকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, আমরা নারী উদ্যোক্তাদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে সিলেট চেম্বারে নিয়মিতভাবে প্রশিক্ষণ কর্মশালা, সেমিনার ইত্যাদি আয়োজন করে যাচ্ছি। আগামীতেও এরকম কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে। তিনি জানান, সম্মেলনে নারী উদ্যোক্তাদের ভ্যাট, ট্যাক্স, বিএসটিআই ও ব্যাংকিং সহ অন্যান্য বিষয়ে ধারণা প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোর সহযোগিতায় আলাদা বুথ স্থাপন করা হয়েছে। এসব বুথ থেকে নারী উদ্যোক্তাগণ প্রয়োজনীয় তথ্য ও সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিল রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, সিলেট চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক মোঃ মামুন কিবরিয়া সুমন, মোঃ সাহিদুর রহমান, ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, মোঃ আব্দুর রহমান (জামিল), মোঃ আতিক হোসেন, মোঃ আমিনুজ্জামান জোয়াহির, সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি ও এফবিসিসিআই এর সাবেক পরিচালক মোঃ হিজকিল গুলজার, সাবেক পরিচালক এনামুল কুদ্দুছ চৌধুরী, মোঃ বশিরুল হক, মুজিবুর রহমান মিন্টু, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আল আজাদ, পূবালী ব্যাংকের জিএম দেওয়ান জামিল মাসুদ, বিএসটিআই এর সহকারী পরিচালক প্রকৌশলী হাবিবুর রহমান, বিসিক সিলেট এর ডিজিএম মির্জা সোহেল, উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্তকর্তা ডাঃ নার্গিস সুলতানা লাকী, নারী উদ্যোক্তা উন্নয়ন সাব কমিটির যুগ্ম আহবায়ক মধুমিতা ইসলাম ও হেলেন আহমদ, সাব কমিটির সদস্যবৃন্দ, সোনালী ব্যাংকের ডিজিএম মোঃ এমরান উল্লাহ্, অগ্রণী ব্যাংকের ডিজিএম মাহমুদ রেজা, মোর্শেদা আক্তার, জনতা ব্যাংকের ডিজিএম বিমল কান্তি দাস, ইউনিয়ন ব্যাংকের এসএভিপি হুমায়ুন কবির, স্থানীয় প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, বিসিক, বিএসটিআই, বিভিন্ন ব্যাংক ও সরকারী-বেসরকারী সংস্থার উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ।






Related News

Comments are Closed