Main Menu

নারী চিকিৎসকের লাশ উদ্ধার: অন্য চিকিৎসক রিমান্ডে

ডেইলি বিডি নিউজঃ লন্ডনে চিকিৎসা বিজ্ঞানে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জনের আকাশ সম স্বপ্ন-স্বাধ হলো না পূরণ ডা; সিরাজুম মনিরা সোমার। চিকিৎসা সেবায় অদম্য সাহসিকতা নিয়ে করোনা মহামারী কালীন সময়ে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ইন্টার্নশিপে যোগ দিয়েছিলেন মনিরা।

জানা গেছে তারই এক সহকর্মী ডা: এস এম রাকিবুল আজাদের সঙ্গে ছিল গভীর প্রেমের সম্পর্ক। ৩ মাস পর ইন্টার্নশিপ শেষ হলেই তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বিধি বাম গত ২৫ জানুয়ারি সকালে খিলক্ষেতের নামাপাড়ার ১৯৬/২ নম্বর বাড়ির চারতলার ভাড়া ফ্ল্যাট থেকে পুলিশ উদ্ধার করে মনিরার লাশ। এসময় একত্রে দুই হাত ও গলায় কালো স্কচটেপ দিয়ে প্যাঁচানো ছিল তাঁর । এ ঘটনায় তার সহকর্মী ইন্টার্ন চিকিৎসক এস এম রাকিবুল আজাদকে গ্রেফতার করে ৩ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। লাশ উদ্ধারের ঘটনায় নিহতের বাবা আতাউর রহমান বাদী হয়ে ডা: এস এম রাকিবুল আজাদকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মনিরার বাবা জানান, ‌তার মেয়ের মনে আকাশ ভরা স্বপ্ন ছিল লন্ডন থেকে চিকিৎসা বিজ্ঞানে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করে দেশের সাধারণ মানুষের চিকিৎসা সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করার । করোনার মধ্যেই তার ডাক্তার মেয়ে করোনা ভীতি উপেক্ষা করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে সেবা দিয়েছেন করোনায় আক্রান্ত রোগীদের l কিন্তু নিষ্ঠুর রাকিব পরিকল্পিতভাবে তাদের মেয়েকে হত্যা করে দমিয়ে দিয়েছে এক অধরা স্বপ্ন আকাঙ্খার ।

এদিকে খিলক্ষেত থানার ওসি মুন্সী ছাব্বির আহম্মেদ সূত্রে জানা যায় , ‘সোমা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকে জিপিএ-৫ পেয়েছিলেন। এরপর এমবিবিএস পড়তে যান চলে যান সুদূর চীন দেশে । তার বাবা আতাউর রহমান রাজশাহীতে প্রাণিসম্পদ বিভাগের উপ-সহকারী কর্মকর্তা। মা হোসনে আরা রাজশাহীতে একটি স্কুলের শিক্ষিকা। চীনে একটি মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস পড়তে গিয়ে রাকিবুল আজাদের সঙ্গে পরিচয় হয়। রাকিবও ওই মেডিকেল কলেজে পড়াশুনা করতেন। গেল বছরের মার্চ মাসে এমবিবিএস পড়াশুনা শেষ করে দেশে ফিরেন উভয়েই । পরে তারা দুজনই কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ইন্টার্নশিপে যোগ দেন। খিলক্ষেতে বাসা ভাড়া করে একত্রে থাকতেন দুজনেই । তবে তাদের মধ্যে কোনো বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার কোন দলিল বা প্রমাণ পাওয়া যায়নি।’

ওসি আরো জানান, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট অনুযায়ি হত্যার আলামত মিলেছে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। ডা: এস এম রাকিবুল আজাদকে গ্রেফতার করে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি এখনও হত্যার কথা স্বীকার করেননি।






Related News

Comments are Closed