Main Menu

শেখ হাসিনার উন্নয়নের রাজনীতিতে দগ্ধ হচ্ছে বিএনপি

শেখ শফিকুর রহমান,নিউইয়র্ক।।
এ এযাবতকালে বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় যে সকল রাজনৈতিক দল এসেছে সবচেয়ে বেশি সফলতার সাথে সরকার পরিচালনা করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশে বঙ্গবন্ধু খুবই অল্প সময়ের জন্য সুযোগ পেয়েছিলেন সরকার পরিচালনা করার। তবুও সেই সময়ে জাতিকে অনেক কিছু করে দিয়েছিলেন তিনি। ৭৫এর পর দীর্ঘ সময় পর ৯৬ সালে সরকার পরিচালনায় সুযোগ পায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। সেই সময় অনেক অর্জন অর্জিত হয়ে বাংলাদেশের। তারপর চারদলীয় জোট যে সরকার এসেছে তারা সবাই দেশকে দূর্নীতি সহ অনেক অঘটন ঘটিয়েছে বারবার। কিন্তু যখননি দেশরত্ন শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসেছেন ততবারই দেশকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন দুর্বার গতিতে যা অন্য দলের কাছে হিংসার কারণ হয়েছেন।

শেখ হাসিনা বারবার দেশের মানুষ এবং বিশ্ববাসীকে দেখিয়েছেন কিভাবে দেশকে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যেতে হয়। তিনি যখন বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছিলেন তখনও বিএনপি সহ অনেকে ডিজিটাল নিয়ে তামাশা করেছিল আজকে বাংলাদেশ ডিজিটাল দেশে পরিনত হয়েছে। আবার শেখ হাসিনা যখন পদ্মা ব্রীজ তৈরির ঘোষণা দিলেন তখনও বিএনপি বলেছিল পদ্মা ব্রীজ হবেনা। হলো অনেক ষড়যন্ত্র বিশ্বব্যাংক মুখ ফিরিয়ে নিল বাংলাদেশ থেকে। শেখ হাসিনা ঘোষণা দিলেন আমরা নিজের টাকা দিয়ে পদ্মা ব্রীজ তৈরি করব। সবাই এ নিয়ে করলো কতনা তামাশা অবশেষে সকল জল্পনা কল্পনা পিছনে পেলে শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্ব আর সাহসিকতার ফলে নিজেরাই তৈরি করে ফেলেছি স্বপ্নের পদ্মা ব্রীজ যা অচিরেই জাতি গাড়িতে চড়ে পারাপার হতে পারবে।

বাংলাদেশ যতই এগিয়ে যাচ্ছে উন্নতির দিকে ততোই বিএনপি জ্বলে পুড়ে দগ্ধ হচ্ছে শেখ হাসিনার উন্নয়নের গতি দেখে।

বিএনপি তারা কখনোই চায়নি বাংলাদেশ এভাবে শেখ হাসিনার হাত ধরে দরিদ্র দেশ থেকে মধ্য আয়ের দেশে পরিনত হউক। তাদের উদ্দেশ্য ছিল দেশের ক্ষমতায় আরোহণ করে হাওয়া ভবনের মাধ্যমে আজীবন দেশকে লুটেপুটে খাবে তাদের সেই দিবা স্বপ্ন কে চিরতরের জন্য রুখে দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। আজ আমরা বাংলাদেশের মানুষ বলতে পারি আমাদের ইলেকট্রিক মেট্রো রেল আছে, ঢাকায় ফ্লাইওভার আছে, চট্টগ্রামে কর্নফুলি ট্রানেল আছে যা অতীতে এসব স্বপ্ন ছিল।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মানুষকে স্বপ্ন দেখিয়েছেন যা এখন তিনি বাস্তবায়ন করে সত্যিকার অর্থে বিশ্ববাসীকে অবাক করে দিয়েছেন।

বাংলাদেশের মানুষের জন্য সুভাগ্য আমরা শেখ হাসিনার মতো একজন সৎ আদর্শিক সাহসিক রাষ্ট্র নায়ক পেয়েছি।তাইতো আমরা বলতে পারি শেখ হাসিনা পেরেছেন পারছেন এবং পারবেন। শেখ হাসিনার ৭৫ তম শুভ জন্মদিনে দেশবাসীর পক্ষ থেকে লাল গোলাপ শুভেচ্ছা এবং দীর্ঘায়ু কামনা করছি।






Related News

Comments are Closed